World

মাখনের গরু চোখের দেখা দেখতে ছুটছেন হাজার হাজার মানুষ

মাখনের রং তো সকলের চেনা। সেই মাখনের গরু। একটু চমকে যাওয়ার মত বলেই তো মানুষের ভিড় উপচে পড়ল। সকলে চান চোখের দেখা দেখতে।


নানারকমের গরুই তো দেখা গেছে। কিন্তু মাখনের গরু কজনই বা দেখেছেন! মাখনের গরু চোখে দেখতে পাওয়াই তো দারুণ ব্যাপার। সেই গরু দেখতে যে ভিড় জমবে সেটাই তো স্বাভাবিক।


তবে যদি মনে করা হয় যে মাখনের গরু বলতে মাখনের রংয়ের গরুর কথা বলা হচ্ছে তাহলে কিন্তু সেটা ভুল হবে। কারণ এক্ষেত্রে মাখনের গরু মানে কিন্তু আক্ষরিক অর্থেই মাখনের গরু। অর্থাৎ মাখনের তৈরি গরু।


কিন্তু সে গরুর ওজন ২৬৩ কেজি। চমকে ওঠার কিছু নেই। কারণ এই এত পরিমাণ মাখন দিয়েই এই গরু তৈরি করা হয়। খাঁটি মাখনের সেই অতিকায় গরু রাখা থাকে কাচের দেওয়ালের মধ্যে। কাছে যাওয়ার উপায় নেই। কিছুটা দূর থেকেই চক্ষু কর্ণের বিবাদ দূর করতে হয়।

আমেরিকার ইলিনয় প্রদেশের ইলিনয় স্টেট ফেয়ার অত্যন্ত জনপ্রিয়। বাৎসরিক এই মেলায় মানুষের ঢল নামে। সেখানেই প্রতিবছর অন্যতম আকর্ষণ হয়ে ওঠে এই মাখনের গরু।


১০২ বছর ধরে এই মাখনের গরু এই মেলার মুখ্য আকর্ষণ হয়ে আছে। যা দেখতে দূর দূর থেকেও হাজির হন মানুষজন। এমন বিশাল আকৃতির মাখনের গরু ছোটদের কাছে রূপকথার মতন।


এমন গরুর কথা রূপকথার বইয়ে পাওয়া যেতে পারে, কিন্তু বাস্তবেও যে তার দেখা মিলতে পারে তা অনেক শিশুর কাছেই না দেখা পর্যন্ত অবিশ্বাস্য।


Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *