World

গিয়েছিলেন দাঁতের চিকিৎসা করাতে, নিয়ে ছুটতে হল ফুসফুসের চিকিৎসকের কাছে

সারা দেহে অন্য কোনও সমস্যা ছিলনা। থাকার মধ্যে ছিল দাঁতের সমস্যা। যে সমস্যা মেটাতে দাঁতের চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু হল অন্য কাণ্ড।

কেলেঙ্কারি কাণ্ড বললেও কম বলা হয়। ৬০ বছরের এক বৃদ্ধ গিয়েছিলেন দাঁতের চিকিৎসকের কাছে। দাঁত ফিল করানো ছিল উদ্দেশ্য। সে কাজ শুরুও করেছিলেন ওই দন্ত বিশেষজ্ঞ।

এমন সময় একবার কেশে ফেলেন ওই বৃদ্ধ। এই সময় তিনি একটু জোরে শ্বাস নেন। আর সেই টানে সোজা তাঁর নাকে ঢুকে পড়ে চিকিৎসকেরা হাতে থাকা ১ ইঞ্চির একটি ড্রিল বিট। যা দাঁতের চিকিৎসায় কাজে লাগে।

এরপর সেটি শ্বাসের টানে নাক দিয়ে শ্বাসনালীর গভীরে পৌঁছে যায়। সাংঘাতিক কাণ্ড। দাঁতের চিকিৎসা লাটে ওঠে। ওই বৃদ্ধকে নিয়ে দেরি না করে ছোটা হয় হাসপাতালে।

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর প্রথমে সাধারণ স্ক্যানে কিছুই দেখা যায়নি। তারপর বিশেষ স্ক্যান করে দেখা যায় যে ওই ড্রিল বিট নামে লম্বা ধাতব দন্তচিকিৎসা সরঞ্জামটি পৌঁছে গেছে বৃদ্ধের ফুসফুসে।

চিকিৎসকদের মাথায় হাত পড়ে। এ তো বার করাই এক দুঃসাধ্য কাজ! তবে অপেক্ষাও বেশিক্ষণ করা যাবে না। তাই ঝুঁকি নিয়েও সেটি বার করার কাজ শুরু হয়।

অবশেষে জটিল প্রক্রিয়ায় সেটিকে বার করে আনেন চিকিৎসকেরা। এ যাত্রায় রক্ষা পান ওই বৃদ্ধ। ঘটনাটি ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয়ে।

জোজসি নামে ওই বৃদ্ধ অবশ্য জানিয়েছেন, তাঁর শরীরে ওই ধাতব বস্তুটি প্রবেশ করেছিল বটে তবে তিনি তা তেমন বুঝতে পারেননি। কেবল একটু কাশি পাচ্ছিল তাঁর।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.