Tuesday , November 12 2019
Baby
প্রতীকী ছবি

ভাই বা বোন না থাকা শিশুর স্থূল চেহারার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত

অনেক পরিবারেই এখন একটি সন্তান। বাবা-মা একটি সন্তানকেই মানুষ করতে জেরবার। তাই আধুনিক জীবনে নিজেদের সামলে সন্তানকে সামলে পরিবারকে সামলে দ্বিতীয় সন্তান থেকে এখন অনেকই দূরে থাকেন। কিন্তু কোনও শিশুর বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান হওয়া তার স্বাস্থ্যের পক্ষে চিন্তার। মনে হতেই পারে ভাই বা বোন না থাকলে মানসিক দিক থেকে চিন্তার হতে পারে, কিন্তু স্বাস্থ্যের সঙ্গে কী সম্পর্ক? উত্তর দিলেন গবেষকরা।

গবেষকরা জানাচ্ছেন, যেসব সন্তান একা। যার ভাই বা বোন নেই। তারা ক্রমশ মোটা হতে থাকে। স্থূলতা পেয়ে বসে তাদের অনেককে। কারণ হিসাবে তাঁরা মনে করছেন, একাধিক সন্তান যে পরিবারে রয়েছে সেখানে অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর খাবারে জোর দেওয়া হয়। অন্যদিকে একমাত্র সন্তান থাকলে ঠিক উল্টো হয় বলেই গবেষণায় পেয়েছেন তাঁরা।

গবেষকরা বলছেন একমাত্র সন্তানের মায়েরা অনেক বেশি স্থূলতা প্রবণ হয়ে থাকেন। তাঁদের চেহারাও তথাকথিত মোটার দিকে যেতে থাকে। যা সার্বিক পরিবারের জন্য ভাল নয়। সন্তানের খাবার নিয়ে নিউট্রিশনিস্টের পরামর্শ নিয়ে খাবার খাওয়ানোরও পরামর্শ দিচ্ছেন গবেষকরা। অনেকে আবার শিশুকে ডে কেয়ারে রেখে কাজে বার হন। সেক্ষেত্রে ডে কেয়ারে থাকলে শিশু স্থূল হতে থাকে বলে মনে করেন তাঁরা। কিন্তু এটা ভ্রান্ত ধারণা বলে জানিয়ে দিয়েছেন গবেষকেরা। বরং স্বাস্থ্যকর খাবারে জোর দেওয়ার পরামর্শই দিয়েছেন তাঁরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *