Health

হার্ট ভাল রাখতে এই খাবারটি ভুলেও ছোঁবেন না

এমন এক খাবার সম্বন্ধে গবেষকরা সাবধান করলেন যা অনেকেই খেতে পছন্দ করেন। এটি চূড়ান্ত পরিমাণে খাদ্যে থাকা কোলেস্টেরল বহন করে।

হার্ট ভাল রাখতে অদ্যাবধি অনেক ধরনের খাবার সম্বন্ধেই সতর্ক থাকার পরামর্শ বিভিন্ন সময়ে সামনে এসেছে। এবার এমন এক খাবার সম্বন্ধে গবেষকরা সাবধান করলেন যা অনেকেই খেতে পছন্দ করেন। তা হল ডিমের কুসুম।

গবেষকরা জানিয়েছেন ডিমের কুসুম চূড়ান্ত পরিমাণে খাদ্যে থাকা কোলেস্টেরল বহন করে। যা খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের আধিক্য হতে থাকে। যা আখেরে হৃদযন্ত্রের নানা রোগের কারণ হয়। এমনকি নানা কারণে মৃত্যুরও কারণ হয়।

একটি ডিমে ১৮৬ মিলিগ্রাম খাদ্যে থাকা কোলেস্টেরল থাকে বলে জানিয়েছেন গবেষকেরা। ফলে বেশি পরিমাণে ডিম থেকে ডিমের কুসুমও পেটে যায়। যা শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়।

গবেষকরা সাফ জানিয়েছেন, দেহে যত কোলেস্টেরল কম জমবে ততই কমবে হৃদযন্ত্র ঘটিত অসুস্থতা। হার্টের সমস্যা কমাতে তাই কোলেস্টেরল আছে এমন খাবার থেকে যতটা সম্ভব দূরে থাকা যায় ততই মঙ্গল বলে সতর্ক করেছেন তাঁরা।


অনেকে ডিমকে চিজ দিয়ে অমলেট বানিয়ে খেতে পছন্দ করেন। এক্ষেত্রে বিশেষ করে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকেরা। তাঁরা জানিয়েছেন, ডিমকে চিজ দিয়ে অমলেট বানিয়ে খেলে বিপদ আরও বাড়বে। ফলে তা থেকে দূরে থাকাই শ্রেয়।

এখন প্রশ্ন হল তাহলে কী মানুষের রসনা থেকে ডিম বাদ করে দিতে হবে? গবেষকরা বলছেন, ঠিক তা নয়। একজন মানুষের প্রতি সপ্তাহে ৩ থেকে ৪টি ডিম খাওয়া ভাল বলে জানিয়েছেন তাঁরা। তবে ডিম কখনই অতিরিক্ত পরিমাণে ভোজন নয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button