Health

করোনা প্রতিষেধক টিকার ১টি ডোজের উপকারিতা কতটা জানালেন গবেষকেরা

সাধারণ মানুষকে এখন যে করোনা প্রতিষেধক টিকা প্রদান করা হচ্ছে তা ২টি ডোজের। বিশ্বের অধিকাংশ করোনা প্রতিষেধক টিকাই ২টি ডোজের। তার ১টি ডোজের উপকারিতা কতটা, জানালেন গবেষকেরা।

করোনা প্রতিষেধক টিকা সাধারণভাবে ২টি ডোজের। কোভ্যাক্সিন বা কোভিশিল্ড টিকা, যা ভারতে প্রদান করা চলছে তাও ২টি ডোজের টিকা।

একটি ডোজ গ্রহণ করার পর দ্বিতীয় ডোজ পেতে একটা সময়ের ফারাক থাকে। এখন প্রশ্ন হল প্রথম ডোজ নেওয়ার পর কি আদৌ কোনও প্রতিরোধ ক্ষমতা দেহে তৈরি হয়? নাকি তা অপেক্ষা করে ২টি ডোজ সম্পূর্ণ হওয়ার?

এর উত্তর খুঁজতে লখনউয়ের কিং জর্জেস মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি এমন ৫৬ জন চিকিৎসককে বেছে নেয় যাঁদের ৬-৭ মাসের মধ্যে ২ বার করোনা হয়ে গেছে।

এঁদের পরীক্ষা করে দেখা গেছে প্রথম ডোজ নেওয়ার পর করোনা হবে না এমনটা নয়, তবে করোনা কতটা ভয়ানক হয়ে উঠবে তাঁর ক্ষেত্রে তা নির্ভর করছে ১টি ডোজের ওপর।

১টি ডোজ নেওয়া হলেও গবেষকদের মতে, শরীরে যে প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয় তাতে করোনা চরম আকার নিতে পারেনা। করোনা হলেও তা তাঁকে সাধারণভাবে মৃত্যুর মুখে নিয়ে গিয়ে ফেলতে পারেনা।

৫৬ জন চিকিৎসকের মধ্যে এমন ২১ জন ছিলেন যাঁদের একটি ডোজ নেওয়ার পর করোনা হয়। দেখা যায় তাঁরা হয় উপসর্গহীন অথবা তাঁদের হাল্কা উপসর্গ দেখা দিয়েছে। যেমন জ্বর আসা, গলায় ঘা বা কাশি। যা আবার ৩-৪ দিনের মধ্যেই ঠিক হয়ে গেছে।

গবেষকেরা জানাচ্ছেন, একবার টিকা নিলেই শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি শুরু হয়ে যায় ২-৩ সপ্তাহের মধ্যে। যা প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে থাকে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button