Health

রাতে ঘুমোতে চায়না সন্তান, রইল ঘুম পাড়ানোর সহজ উপায়

একদম শিশুরা তো বটেই, এমনটি বাল্য বা কৈশোরেও অনেক বাচ্চা রাতে ঘুমোতে চায়না। কীভাবে তাদের এই অভ্যাস বদল করা যায় তা জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা।

রাতে যে ঘুমটা প্রয়োজন তা আপনার সন্তান ঘুমোচ্ছে না! এতে তার স্বাভাবিক বিকাশ বিঘ্নিত হতে পারে। ছোটরা এত কিছু বোঝে না। রাতে অনেক সময় তারা ঘুমোতে চায় না।

তাদের সঠিক নিয়মে ফেলে ঘুম পাড়াতে চেয়েও পেরে উঠছেন না এমন অভিভাবকের সংখ্যা কম নয়। কি করলে অভিভাবকরা তাদের নিয়ম মেনে ঘুম পাড়াতে পারবেন তারই হদিশ দিলেন বিশেষজ্ঞেরা।

বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, যেসব শিশু বেশি রাত করে শুতে যায় তাদের ঘুমের সময় আধ ঘণ্টা করে এগিয়ে আনতে হবে অভিভাবকদের। এতে ক্রমে তারা সঠিক সময়ে ঘুমোতে যাবে।

সেটাই রুটিন করে দিতে হবে যাতে সে প্রয়োজনীয় ঘুমটা প্রতিদিন রাতে পায়। ঘুমোতে যাওয়ার সময়টা নিয়ে কিছুটা কড়া হতে হবে অভিভাবকদের।


সন্তান ঘুমোতে যাওয়ার কমপক্ষে ১ ঘণ্টা আগে থেকে তার টিভি দেখা বা মোবাইলে গেম খেলা বন্ধ করতে হবে। সহজ কথায় স্ক্রিন টাইম ঘুমোনোর সময়ের ১ ঘণ্টা আগে বন্ধ করলে তাতে খুব ভাল ঘুম হবে বাচ্চাটির।

দিনের দ্বিতীয়ার্ধে কখনই ছোটদের মিষ্টি জাতীয় পানীয় খেতে দেওয়া উচিত নয়। তাতে তাদের ঘুমের ব্যাঘাত হয়। ঘুমোতে যাওয়ার ঠিক আগে অনেকটা জল পান করতে দেওয়া উচিত নয়। তাতে রাতে তার বারবার প্রস্রাব পাবে। তাতে ঘুমের ব্যাঘাত হবে।

সন্তান কোন ম্যাট্রেসে ঘুমোচ্ছে বা কোন মাথার বালিশ মাথায় দিচ্ছে সেদিকে নজর রাখতে হবে। যাতে তার ঘুমের সময় অস্বস্তি না বাড়ে। ভারী কোনও ঢাকা বিছানায় থাকা উচিত নয়। বাচ্চার ঘুমের সময় ঘরের আলো ও উষ্ণতা সঠিক থাকা বাঞ্ছনীয়।

এর বাইরে যদি সন্তানের রাতে জোরে জোরে নিঃশ্বাস ফেলা, নাক ডাকা বা ঘুমের মধ্যে উঠে হাঁটার মত প্রবণতা দেখা যায় তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

মোট কথা সন্তানের সঠিক পরিমাণ ঘুম হচ্ছে কিনা সেদিকে অবশ্যই নজর রাখতে হবে অভিভাবকদের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button