Health

বর্ষায় কী কী খেলে সুস্থ থাকবেন, জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা

বর্ষায় অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। এসব থেকে নিজেকে দূরে রাখতে কী কী খাবারের ওপর জোর দেবেন জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

বর্ষাকে ঋতুর রানি বলেছিলেন কবিগুরু। বর্ষায় অনন্য রূপে সেজে ওঠে প্রকৃতি। কেউ তা উপভোগ করেন জানালায় বসে, কেউ আবার এক প্লেট পাকোড়া আর চা সহযোগে হারিয়ে যান বৃষ্টির রিনিঝিনি শব্দে।

বৃষ্টি যেমন রোমান্টিক তেমনই তার হাত ধরে ঘরে ঢোকে নানা রোগ। বর্ষায় মানুষ সবচেয়ে বেশি অসুস্থ হন। তাই বর্ষার দিনগুলোতে নিজেকে সুস্থ রাখাও একটা চ্যালেঞ্জ।

আর সেই চ্যালেঞ্জে মানুষ তখনই বিজয় পাবেন যখন তিনি সঠিক কিছু খাবার বেছে নেবেন প্রাত্যহিক জীবনে। খাদ্য বিশেষজ্ঞেরা তারই হদিশ দিয়েছেন।

বর্ষায় রোগ থেকে দূরে থাকতে মরসুমি ফলে জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা। বর্ষায় বেদানা, কালোজাম, পিচ ফল বা এমন কিছু ফল খেতে বলছেন তাঁরা যাতে রয়েছে ভিটামিন এ এবং সি, ফাইবার এবং অ্যান্টিঅক্সিডান্ট।


তবে রাস্তার কাটা ফল বা জুস খেতে মানা করছেন বিশেষজ্ঞরা। সেইসঙ্গে তাঁদের পরামর্শ ডাল, স্যুপ, গ্রিন টি, মশলা চায়ে জোর দিতে।

এই সময় লাউ, চিচিঙ্গা, ঝিঙে সহ অন্যান্য আনাজ খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞেরা। এসব আনাজ দিয়ে শুধু তরকারি বলেই নয়, পরোটা, স্যুপ বা রায়তা করেও খাওয়া যাতে পারে।

এর সঙ্গে দই, বাটার মিল্ক জাতীয় খাবার পাতে রাখতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ডিম বা মুরগির মাংস তো রাখতেই হবে এরসঙ্গে।

তারসঙ্গে রাজমা, ছোলা, ডাল, মুগ খাওয়া জরুরি। বিশেষজ্ঞেরা জানাচ্ছেন মেথির দানা রান্নায় থাকা ভাল এই সময়। সেইসঙ্গে কাঁচা অবস্থায় থাকা গোলমরিচ বর্ষায় রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

জ্বর থেকে শুরু করে ভাইরাল হানা রুখে দিতে আদা এবং রসুনের জুড়ি নেই। তাই বর্ষায় এই ২টি জিনিস রান্নায় রাখতে বলছেন বিশেষজ্ঞেরা।

এছাড়া হলুদ এই সময় খুবই উপকারি ভূমিকা পালন করে। আরও এক ধরনের খাবারে জোর দিতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

যেসব খাবারে ওমেগা ৩ এবং ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে সেসব খাবার খেতে বলছেন বিশেষজ্ঞেরা। যা থাকে মাছ, চিংড়ি, ঝিনুক বা বাদামে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button