Health

টিকা নিয়ে স্তন্যদানে ঝুঁকি কতটা, জানাল গবেষণা

স্তন্যদুগ্ধে কি টিকা নিলে তা মিশে যাচ্ছে? সেক্ষেত্রে শিশুকে স্তন্যপান করানো কি উচিত হবে? এই প্রশ্ন উঠছিল। যার উত্তর দিল একটি গবেষণা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে সন্তানকে স্তন্যপান করাচ্ছেন এমন মহিলারাও করোনা প্রতিষেধক টিকা নিতে পারবেন। কিন্তু সেখানেই তৈরি হয় আশঙ্কার মেঘ।

টিকা নিলে তা রক্তের সঙ্গে মিশছে। ফলে তা স্তন্য দুগ্ধের সঙ্গেও মিশে যেতেই পারে। এমনটা মনে করে অনেক মহিলাই টিকা নিয়ে সন্তানকে স্তন্যপান করানো বন্ধ করে দেন। আবার অনেক মহিলা শিশুকে স্তন্যপান করাতে হচ্ছে বলে টিকা নেওয়া থেকে বিরত থাকেন।

অ্যাকাডেমি অফ ব্রেস্টফিডিং মেডিসিন-এর তরফে আতঙ্ক কিছুটা বাড়িয়ে জানানো হয় যে টিকার কিছু অংশ মায়ের দুধের সঙ্গে মিশে যেতেই পারে। সেক্ষেত্রে শিশুর স্বাভাবিক প্রতিরোধ নষ্ট হতে পারে। যা আরও ভীতি তৈরি করে।

সানফ্রানসিসকোর ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এই নিয়ে গবেষণা শুরু হয়। গবেষণার ফল এবার সামনে এল। গবেষকেরা দাবি করেছেন মায়ের দুধের সঙ্গে টিকা মিশছে না।

এমআরএনএ টিকা যা ফাইজার ও মডার্না দিচ্ছে, সেই ২ সংস্থার টিকাই নিয়েছেন এমন স্তন্যদাত্রী মায়েদের স্তন্যদুগ্ধ পরীক্ষা করে দেখা গেছে মায়েরা টিকা নিলেও তাঁদের দুধে টিকার অস্তিত্ব নেই।

তাই গবেষকরা জানাচ্ছেন, এটা যখন পরীক্ষিত তখন মায়েরা নিশ্চিন্তে টিকাও নিতে পারে, আর সন্তানকে স্তন্যপানও করাতে পারেন। টিকা নেওয়ার জন্য স্তন্যপান বন্ধ করার কোনও প্রয়োজন নেই।

বিশ্বজুড়ে অনেক মহিলাই তাঁর সন্তানকে স্তন্যপান করাচ্ছেন। তাঁদের জন্য এই গবেষণালব্ধ তথ্য যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button