Health

২ টাকার কারণে ২ লক্ষ টাকা ব্যয় হচ্ছে সরকারের

২ টাকা খরচের এক বস্তুর কারণের সরকারকে অনেক ক্ষেত্রে ২ লক্ষ টাকা ব্যয় করতে হচ্ছে। এমন এক তথ্য সামনে এনে দিল টাটা মেমোরিয়াল সেন্টার।

দাম ২ টাকা বা তার চেয়ে ১-২ টাকা বেশি। অনেক দোকানেই সারি দিয়ে ঝুলতে দেখা যায় রঙিন পাতা। যার ওপর লেখা থাকে গুটখা।

অনেক ক্ষেত্রে গুটখা কথাটা বড় করে নয়, ছোট করে প্যাকেটে লেখা থাকে। নামটা বড় করে দেওয়া হয়। যা অনেকক্ষেত্রেই খুব আকর্ষণীয় হয়।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

ভারতে গুটখার বাজার কিন্তু বিশাল। ফলে পান, সিগারেটের দোকানে গুটখা পাওয়াই যায়। এমনকি অন্য দোকানেও ঝুলতে দেখা যায় গুটখার প্যাকেট।

অল্প দাম গুটখা কেনার প্রতি মানুষের আকর্ষণ বাড়ায়। যাঁরা গুটখা খেয়ে থাকেন তাদের কার্যত নেশায় পরিণত হয় গুটখা খাওয়া।

কিন্তু তা থেকে ঝুঁকি ভয়ংকর। গুটখা কিন্তু মুখের ক্যানসারের কারণ হয়ে থাকে। যাঁরা গুটখা নিয়মিত খেয়ে থাকেন তাঁদের অনেকের মুখের ক্যানসার ধরা পড়ে।

ভারতে মুখের ক্যানসারের চিকিৎসার জন্য সরকার ২ লক্ষ টাকার ওপর খরচ করে থাকে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কারও খরচ সরকার বহন করে। আর এটাই যদি বেসরকারি কোথাও চিকিৎসা করাতে হয় তাহলে তার খরচ ৬ লক্ষ টাকার ওপর।

এমনই তথ্য সামনে এনেছে টাটা মেমোরিয়াল সেন্টার। যা ভারতের অন্যতম প্রধান ক্যানসার চিকিৎসা কেন্দ্র। ফলে যা দাঁড়ায় তাতে ২ টাকার একটি গুটখার প্যাকেট থেকে হওয়া রোগের জন্য সরকারের খরচ হয়ে থাকে ২ লক্ষ টাকার ওপর।

গুটখার কাঁচামাল যোগানকারী এক ব্যক্তি বিজয় তিওয়ারি। তিনি একটি বিষয় তুলে ধরেছেন। অনেক ক্ষেত্রেই গুটখায় লেখা থাকে কেশর দেওয়া থাকে, গোলাপ দেওয়া থাকে।

বিজয় জানিয়েছেন এখন কেশরের ১ কেজির দাম ১ লক্ষ টাকা। গোলাপের দামও বেশি। ফলে তা ২ টাকার প্যাকেটে দেওয়া সম্ভব নয়।

বিজয় তিওয়ারির দাবি, গুটখা সংস্থাগুলি আদপে বিদেশ থেকে আনা ক্ষতিকারক রাসায়নিক গুটখা তৈরিতে ব্যবহার করে থাকে। যা ভয়ংকর ক্ষতি করে মানুষের।

টাটা মেমোরিয়াল জানিয়েছে দেশে প্রতি বছর প্রায় ১ লক্ষ মানুষ মুখের ক্যানসারে আক্রান্ত হন। যাঁদের মধ্যে ৫০ হাজারের মৃত্যু হয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More