Health

পোড়া সারাতে এই মাছের ছালের তুলনা নেই

বিজ্ঞানীরা বলছেন পোড়া সারাতে ব্যান্ডেজের চেয়ে অনেক ভাল মাছের ছাল। তাও আবার সেই মাছ যা বাজারে সুলভ মূল্যে অতিসহজে পাওয়া যায়।

কোনও পোড়া অংশকে দ্রুত সারিয়ে তুলতে সাধারণত সেখানে সিলভার সালফাডাইজিন ধরণের মলম, সঙ্গে ব্যান্ডেজ ব্যবহার করা হয়। নিয়মিত ড্রেসিংও করতে হয়। তবে গিয়ে এক সময়ে পোড়া অংশ সারে। কিন্তু এই চিকিৎসায় যাঁর পুড়েছে তাঁর কষ্টও কম হয়না।

কিন্তু বিজ্ঞানীরা বলছেন পোড়া সারাতে নাকি ব্যান্ডেজের চেয়ে অনেক ভাল মাছের ছাল। তাও আবার সেই মাছ যা বাজারে সুলভ মূল্যে অতি সহজে পাওয়া যায়। কোন মাছ জানেন?

ব্রাজিলের ফেডারেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ফিলিপ রোচা দাবি করেছেন, তেলাপিয়া মাছের ছাল পোড়া সারাতে অনবদ্য কাজ করে। মিষ্টি জলের এই মাছের ছালে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে কলেজেন প্রোটিন ও আর্দ্রতা। যা দ্রুত পোড়া অংশ সারিয়ে তোলে। কষ্টও অনেক কম হয়।

মানুষের চামড়ায় যে ধরণের কলেজেন প্রোটিন বর্তমান, প্রায় সেই একই রকমের কলেজেন প্রোটিন তেলাপিয়া মাছের ছালেও থাকে। ফলে তা মানুষের পোড়া চামড়া দ্রুত সারাতে পারে।


সারা বিশ্বের সব কোণাতেই এই মাছ সহজলভ্য। খুব সহজে বাড়ে এই মাছ। প্রচুর পরিমাণে উৎপাদন হয়। ফলে তেলাপিয়া মাছ পাওয়া কোথাওই দুঃসাধ্য নয়।

গবেষণা বলছে তেলাপিয়া মাছের ছাল ফ্রিজে রেখে দিলে ২ বছর পর্যন্ত তা পোড়া চামড়া সারাতে ব্যবহার করা যায়। গবেষকদের ধারণা ভবিষ্যতে মানুষ হাসপাতালে এসে নিজেরাই চাপ দেবেন তাঁদের পোড়া অংশের চিকিৎসা যেন মাছের ছাল দিয়ে হয়।

ব্যান্ডেজ করলে বার বার তা ড্রেসিং করতে হয়। কিন্তু গবেষকদের দাবি, তেলাপিয়া মাছের ছাল একবার পোড়া অংশ সারাতে লাগালে এক সপ্তাহে আর পরিবর্তনের দরকার পড়ে না। তবে এখনও মাছের ছাল দিয়ে পোড়া অংশের চিকিৎসা বহুল প্রচলিত হয়নি। হয়তো আগামী দিনে হবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button