Wednesday , July 18 2018
Health Tips

পপকর্নের ভালো খারাপ

সিনেমা দেখতে কে না ভালবাসে। সিনেমা দেখা, ঘরোয়া আড্ডা বা পার্কে একান্তে কিছুটা সময় কাটানোর অন্যতম সঙ্গী পপকর্ন। প্রেম পর্বেও পপকর্ন বেশ রোম্যান্টিক। সিনেমা বা বিজ্ঞাপনের রোম্যান্টিক সিনেও পপকর্ন খুশির আমেজের জায়গা করে নিয়েছে। আজকাল তো রাস্তার মোড়ে পপকর্নের চলতি ফিরতি স্টল চোখে পরে। এছাড়াও শপিং মলের সামনে বা সিনেমা হলের মধ্যেও ভিন্ন স্বাদের পপকর্ন স্টল রয়েছে। ভুট্টার এই বাহারি খাবারটি খান তো অনেকেই। কিন্তু জানেন কি কোন পপকর্ন ভাল, কী ধরণের পপকর্ন স্বাস্থ্যকর, আর কোন ধরণের পপকর্ন এড়িয়ে চলাই শ্রেয়?

মুখরোচক সাদা ফুটফুটে পপকর্নের ভাল বা খারাপ দিক নিয়ে আমরা কথা বলেছিলাম চিকিৎসক পার্থ গুহ মজুমদারের সঙ্গে। এবার দেখে নেওয়া যাক তাঁর থেকে পাওয়া বেশ কিছু পপকর্ন তথ্য,

  • পপকর্ন আর ভুট্টা একই, ফলে উপকারিতাও এক
  • সাধারণত পপকর্নে থাকে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন ও ভেজিটেবল অয়েল। যা ত্বক, হার্ট ও লিভারের জন্য উপকারী
  • বালিতে ভাজা পপকর্ন স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল, ঘরোয়া উপায়ে পপকর্ন তৈরিতেও নুন লাগে না, সাধারণত ঢাকা পাত্র পপকর্ন বানানোর জন্য বেশ ভাল, ঢাকা চাপা দিয়ে করলে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই গরম গরম ফুলকো শ্বেতশুভ্র পপকর্ন হাজির
  • সন্ধের স্ন্যাক্সের জন্য পপকর্ন খুবই স্বাস্থ্যকর
  • নুন ছাড়া পপকর্ন স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল, যাঁদের হাই ব্লাড প্রেশার আছে তাঁদের অবশ্যই নুন বাদ দিয়ে খেতে হবে, চাইলে অল্প সন্দক লবণ মিশিয়ে নিতে পারেন
  • আজকাল পপকর্ন নানা স্বাদের হয়, বাটার, চিজ, বিভিন্ন মশলা ও তেল সহযোগে প্যাকেটবন্দি পপকর্ন বেশ উপাদেয়, এই ধরণের রকমারি পপকর্ন শেষ হতে সময় নেয় না, কিন্তু এ বিষয়ে সাবধান হওয়া প্রয়োজন, যাঁদের কোলেস্টেরলের সমস্যা আছে বা হৃদযন্ত্র জনিত কোনও সমস্যা আছে তাঁদের এই ধরণের পপকর্ন না খাওয়াই ভাল
  • বাটার, চিজ, মশলা যুক্ত পপকর্ন বেশি খেলে কিডনির সমস্যা দেখা দিতে পারে
  • মাসে একদিন জিভের স্বাদের জন্য ফ্লেভারড পপকর্ন খেতেই পারেন, তবে বেশিরভাগ দিন মশলা, বাটার, চিজ সমেত পপকর্ন না খাওয়াই ভাল, সাদা মশলাছাড়া পপকর্ন হামেশা চলতেই পারে

তাহলে আর কি, সন্ধের টিফিনে পপকর্ন নিঃসন্দেহে খেতে পারেন। নুন ছাড়া পপকর্ন স্বাস্থ্যের জন্যও বেশ উপকারী। সন্ধের স্ন্যাক্স হিসাবে চপ-মুড়ি বা রোল, চাউ, ফুচকার থেকে পপকর্ন স্বাস্থ্যের প্রশ্নে শত গুণে ভাল।



About Susmita Kundu

Check Also

Health Tips

গাজরের অনেক গুণ! গাজর খেয়ে ভাল থাকুন

গাজরের গুণাগুণ কিন্তু অপরিসীম। শীতে লাল গাজর পাওয়া গেলেও সারা বছর মেলে কমলা রঙয়ের গাজর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.