World

স্বামী দাঁত মাজেন না, স্নান করেননা, আদালতে স্ত্রী

আদালতে নানা কারণকে সামনে রেখে ডিভোর্স চান স্ত্রী বা স্বামী। এবার স্বামীর স্নান না করা, দাঁত না মাজায় আপত্তি জানিয়ে ডিভোর্স চাইলেন স্ত্রী।

বিয়ে হয়েছে ৩ বছর হল। তার আগেই তাঁদের বিয়ের স্থির হয়েছিল। তখন যখন তিনি বাগদত্তা ছিলেন তখন তাঁর হবু স্বামী তাঁদের বাড়িতে আসতেন। তখন বেশ ভাল পোশাক পরে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন চেহারায় সেজে গুজেই আসতেন। কখনও তাঁর মধ্যে কোনও অস্বাভাবিকতা নজরে পড়েনি।

তারপর বিয়ে হয়। বিয়ে হয় একদম সনাতনি নিয়ম মেনে। বিয়ের পর থেকে শুরু হয় সমস্যা। স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্স চেয়ে এক মহিলা আদালতে দাবি করেছেন যে বিয়ের পর তিনি লক্ষ্য করেন তাঁর স্বামী আদপে ভীষণ আলসে। স্নান পর্যন্ত করতে চান না।

অনেক বলেকয়ে মাসে খুব বেশি হলে একবার তাঁকে স্নান করানো সম্ভব হয়। ফলে তাঁর গা থেকে দুর্গন্ধ বার হয়। সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয় স্বামী তাঁর কাছে এলে। দুর্গন্ধে টেকা দায় হয়।

শুধু স্নান করেননা এমন নয়, তিনি দাঁতও মাজেন না। মাঝেমধ্যে দাঁত মাজেন ওই ব্যক্তি। অধিকাংশ দিন না মেজেই কাটিয়ে দেন। ফলে তাঁর মুখ থেকেও দুর্গন্ধ বার হয়।

তাঁর স্বামী একেবারেই স্বাস্থ্য সচেতন নন। এমন অপরিস্কার হয়ে থাকা পুরুষের সঙ্গে তাঁর পক্ষে সারা জীবন কাটানো সম্ভব নয় বলে আদালতের কাছে জানিয়েছেন ওই মহিলা।

তিনি বিবাহবিচ্ছেদ চেয়েছেন আদালতের কাছে। আদালত ওই মহিলার সব দাবি শুনলেও কোনও সিদ্ধান্ত এখনও জানায়নি। ঘটনাটি ঘটেছে মিশরে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.