SciTech

অনবদ্য আবিষ্কার, সমুদ্রেই অফুরন্ত রয়েছে পৃথিবীকে ঠান্ডা রাখার উপায়

এটির অস্তিত্ব আগেই জানা ছিল। কিন্তু তার যে কি মহিমা তা এবার আবিষ্কার করে ফেললেন বিজ্ঞানীরা। যাকে এক অনবদ্য খোঁজ হিসাবেই দেখছে বিজ্ঞানী মহল।

সমুদ্রের তলায় তা রয়েছে অফুরন্ত পরিমাণে। কোনও যত্ন ছাড়াই তা বেড়ে চলেছে। ছড়িয়ে রয়েছে সমুদ্রের তলদেশ জুড়ে। যা থেকে একটি বিশেষ ধরনের উপাদান নির্গত হচ্ছে। যাকে বিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয় ডিএমএসপি।

সমুদ্রের তলায় সবচেয়ে বেশি পরিমাণে ছড়িয়ে আছে যে শৈবাল তার থেকেই এই ডিএমএসপি পাওয়া যায়। এটি যে পাওয়া যায় সেটাই এতদিন জানা ছিলনা বিজ্ঞানীদের। এবার তার খোঁজ পেলেন তাঁরা।

যেহেতু সমুদ্রের তলায় পাওয়া যাওয়া বিভিন্ন শৈবালের মধ্যেই এই শৈবাল সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায়, তাই তা থেকে ডিএমএসপি নির্গত হওয়ার সুযোগ সর্বাধিক। এই ডিএমএসপি হল এমন এক উপাদান যা জলবায়ু শীতল করার গ্যাস তৈরি করে।

ডাইমিথাইলসালফাইড নামে এই গ্যাসকে ছোট করে বলা হয় ডিএমএস। এই ডিএমএস পৃথিবীর জলবায়ুকে ঠান্ডা করতে দারুণ কার্যকরী ভূমিকা নেয়। এই বিশ্ব উষ্ণায়নের আতঙ্কে ভরা বিশ্বে এই জলবায়ু শীতল করা গ্যাসের নির্গমন সম্বন্ধে জানতে পারা অবশ্যই বিজ্ঞানীদের কাছে পরম প্রাপ্তি।


তাই এই আবিষ্কারকে এক অন্যতম পদক্ষেপ হিসাবে দেখছেন তাঁরা। সমুদ্রের বাতাসের গন্ধ বলে যা সকলের পরিচিত তা আসলে এই ডিএমএস গ্যাসের কারণেই পাওয়া যায়। যা আদপে জলবায়ুকে ঠান্ডা করতে সাহায্য করে।

এই গ্যাস শুধু জলবায়ু ঠান্ডাই করেনা, তার কারণে সামুদ্রিক প্রাণিজগৎ তাদের বিপদ সম্বন্ধে আগে থেকে অবহিত হতে পারে। তাদের খাবার কোথায় রয়েছে সেটারও পথ দেখায় এই গ্যাস। যা ওই শৈবাল থেকে নির্গত ডিএমএসপি উপাদান থেকে তৈরি হয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button