National

মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিলেন কনরাড সাংমা

একসময়ে সনিয়া গান্ধীর বিদেশিনী ইস্যুতে সোচ্চার হয়ে কংগ্রেস থেকে বহিষ্কৃত হয়েছিলেন পিএ সাংমা। উত্তরপূর্ব ভারতের এই পরিচিত কংগ্রেস নেতা পরে নিজের দল গড়েন। লোকসভার অধ্যক্ষের পদও সামলান। কংগ্রেস নেতা হিসাবে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রীও ছিলেন তিনি। বাবার পর তাঁর ছেলে কনরাড সাংমা এদিন সেই মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন। মেঘালয়ে গত ১০ বছর শাসন করেছে কংগ্রেস। এবার ৫৯টি আসনে ভোটগ্রহণ হয়। যার মধ্যে কংগ্রেসের ঝুলিতে আসে ২১টি আসন। নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা থেকে ১০টি আসন কম। কিন্তু একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসাবে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখে তারা। কংগ্রেসের পিছনেই ১৯টি আসন পেয়ে ছিল কনরাড সাংমার এনপিপি।

বিজেপির ঝুলিতে মাত্র ২টি আসন থাকলেও তারা কংগ্রেসের সরকার গঠন রুখতে দৌত্য শুরু করে। সফলও হয়। বিজেপির মধ্যস্থতায় এনপিপি-র সঙ্গে হাত মেলায় ইউডিপি। তাদের রয়েছে ৬টি আসন। কংগ্রেসকে আটকাতে সেই জোটে বিজেপি ছাড়াও যোগ দেয় পিডিএফ, এইচএসপিডিপি। সব মিলিয়ে যোগ করে আসন সংখ্যা দাঁড়ায় ৩৪টি। এরপরই কনরাড সাংমা এতগুলি দলের সমর্থন থাকার দাবি করে সরকার গঠনের জন্য রাজ্যপালের দ্বারস্থ হন। রাজ্যপাল গঙ্গা প্রসাদ তাঁদের সরকার গড়ার আহ্বান জানান। এদিন ১১ জন মন্ত্রীকে নিয়ে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিলেন কনরাড সাংমা। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং সহ বিজেপির আঞ্চলিক নেতৃত্ব।

(ছবি – সৌজন্যে – ট্যুইটার – অমিত শাহ)

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button