World

শহরের বড় অংশকে অন্ধকারে নিয়ে গেল একটি প্রাণি

শহরের বড় অংশকে অন্ধকারে টেনে নিয়ে গেল একটি প্রাণি। যা শহরের কয়েক হাজার মানুষের জীবনেও অন্ধকার ডেকে আনল।

শহরে তখন চরম ব্যস্ততা। ব্যস্ত শহরের রাস্তা ধরে ছুটছে প্রচুর গাড়ি। কিন্তু তারা আচমকাই বিভিন্ন জায়গায় থমকে দাঁড়িয়ে গেল। কারণ ট্রাফিক সিগনালই কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছিল। এই অবস্থায় শহরের বড় অংশ জুড়ে যানজট তৈরি হয়। আবার বিভিন্ন অফিস বা আবাসনে লিফটে থাকা মানুষজন বুঝতেই পারলেননা কেন তাঁদের লিফটটা মাঝপথে বন্ধ হয়ে গেল।

কেন তাঁরা আটকা পড়লেন তার ভিতর। এছাড়া অফিস থেকে বাড়ি, দোকানপাট, শপিং মল এবং আরও নানা জায়গায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল। অন্ধকারে ডুবে গেল শহরের সিংহভাগ। হাজার হাজার মানুষও তার সঙ্গে অন্ধকারে ডুবে গেলেন।

কানাডার সবচেয়ে বড় শহর হল টরেন্টো। ব্যস্ত ও গুরুত্বপূর্ণ শহর। সে শহরে লোডশেডিং মানে তো হইচই পড়বেই। হলও তাই। দ্রুত প্রশাসন ও বিদ্যুৎ দফতরের আধিকারিক থেকে কর্মী সকলে নেমে পড়েন কি হয়েছে জানতে।

আর তা জানতে গিয়ে তাঁরা যা দেখলেন তা দেখে সকলের মাথায় হাত। জানা যায় বিদ্যুৎ বণ্টনের মূল কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ তার ও যন্ত্রকে অকেজো করে দিয়েছে কোনও মানুষ নয়, একটি প্রাণি।


ব়্যাকুনের কাণ্ড এটা। একটি ব়্যাকুন কোনওভাবে ওই সংরক্ষিত এলাকায় প্রবেশ করে। তারপর এই কাণ্ড ঘটায়। বিষয়টি জানার পর দ্রুত তা মেরামতির কাজ শুরু হয়। ২ ঘণ্টা পর শহরে ফের বিদ্যুৎ সংযোগ ফিরে আসে। হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন শহরবাসী।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button