SciTech

মানুষের মদ্যপানে টান কি বাঁদরের দান

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তেই মানুষের মধ্যে মদ্যপানে আসক্তি দেখা যায়। এই মদ্যপানের অভ্যাস মানুষের হল কীভাবে? এই আসক্তির পিছনে রয়েছে কি বাঁদররা, উঠছে প্রশ্ন।

সে শহুরে মানুষ হোন বা গ্রামের অথবা জঙ্গলে থাকা কোনও আদিবাসী সম্প্রদায়, সকলের মধ্যেই মদ্যপানের একটা প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। সে মদ বোতলবন্দি দামি ব্র্যান্ডেরও হতে পারে, আবার স্থানীয়ভাবে তৈরিও হতে পারে। কিন্তু মানুষের এই মদ্যপানের প্রবণতা তৈরি হল কীভাবে?

ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বায়োলজিস্ট ড্রাঙ্কেন মাঙ্কি নামে একটি লেখায় এ বিষয়ে আলোচনা করতে গিয়ে ফিরে গেছেন বহু যুগ আগে। যখন মানুষের পূর্বপুরুষ বাঁদর বা বনমানুষ ছিল। তখন থেকেই নাকি মানুষ শেখে মদ্যপান।

তবে তা এভাবে মদ বানিয়ে নয়। তখন তারা এমন সব ফল খেত যাতে অ্যালকোহলের পরিমাণ ভালই থাকত। এজন্য তারা পাকা বা সামান্য পচন ধরা ফল ব্যবহার করত। মনে করা হচ্ছে তখন থেকেই মানুষ অ্যালকোহল পান করতে শিখে গিয়েছিল।

এখনও অনেক বাঁদর রয়েছে যারা পাকা বিশেষ কিছু ফল খেয়ে থাকে। যেমন স্পাইডার মাঙ্কি নামে বাঁদররা জোবো গাছের ফল খেতে পছন্দ করে। এই ফল জোগাড় করে তারা রেখে দেয় এবং তাদের খাওয়ার একটা বড় অংশই হল এই ফল।

মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকায় এই ফল থেকেই তৈরি হয় চিচা নামে এক ধরনের দিশি মদ। যা সেখানকার স্থানীয় মানুষজন পান করে থাকেন।

হাল্কা পচন ধরা ফল থেকে বাঁদররা প্রচুর ক্যালোরিও পেয়ে থাকে। তা থেকে অ্যালকোহলও পাওয়া যায়। তবে এতকিছুর পরও বাঁদররা মদ্যপ হয়না। তার কারণ তারা ফল থেকে যে পরিমাণ অ্যালকোহল পায় তা দিয়ে মদ্যপ অবস্থায় পৌঁছতে যত পরিমাণ ফল খাওয়া দরকার তার আগেই তাদের পেট ভরে যায়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.