Business

প্রবল গরমে পাতিলেবুর জল খাওয়ারও উপায় রইল না

প্রবল গরম থেকে বাঁচতে সাধারণ মানুষের বড় ভরসা পাতিলেবুর জল। লেবুর জলে তৃষ্ণা মেটার পাশাপাশি এনার্জিও ফিরে আসে। সেই পাতিলেবুর জল খাওয়ারও উপায় রইল না।

তরতর করে চড়ছে পারদ। ভারতের উত্তর পশ্চিম ভাগে গরম সবচেয়ে বেশি। পারদ ৪০ ডিগ্রির ওপর ঘোরাফেরা করছে। সঙ্গে তাপপ্রবাহ হচ্ছে অনেক জায়গায়। এই ভয়ংকর পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে সাধারণ মানুষের বড় ভরসা লেবুর জল।

পাতিলেবুর রস নিঙরে তাতে জল দিয়ে, একটু নুন, একটু চিনি। যা কার্যত গরমে কাহিল, ক্লান্ত শরীরে নিমেষে প্রাণ ফিরিয়ে আনে।

গরমের সঙ্গে লড়ার জন্য অল্প খরচে এর চেয়ে ভাল পানীয় বোধহয় আর নেই। মরুরাজ্য রাজস্থানে তাই প্রতিটি মানুষেরই অসহ্য গরমে দুপুরের বড় ভরসা পাতিলেবুর জল। কিন্তু সেই সাধারণের রিফ্রেশর-ও এবার ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে গেল।

রাজস্থানে এখন পাতিলেবু বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ৪০০ টাকায়। যা থেকে দামটা বুঝতে অসুবিধা হতেই পারে। তাই একটু সহজ করে বললে রাজস্থানে এখন একটা পাতিলেবুর দাম দাঁড়িয়েছে ৩০ টাকায়!

একটা পাতিলেবুর দাম ৩০ টাকা! শুনেই কার্যত আঁতকে উঠছেন মানুষজন। যে পানীয় কদিন আগেও সাধারণের বড় ভরসা ছিল, তা এবারের গরমে ধনীদের পানীয়ে পরিণত হয়েছে মরুরাজ্যে।

কেন এমন অবস্থা? জয়পুরের বিক্রেতারা জানাচ্ছেন, এমনিতেই ফলন কম হয়েছে। ভিন রাজ্য থেকে পাতিলেবু নিয়ে আসার খরচ প্রচুর বেড়ে গেছে। তেলের দাম তরতর করে বাড়তে থাকায় পরিবহণ খরচ এতটাই বেড়েছে যে লেবুর দাম পৌঁছে গেছে ৪০০ টাকা কেজিতে। যা ২ সপ্তাহ আগেও ছিল ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা কেজি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.