World

ঘুমের মধ্যে এনগেজমেন্ট রিং গিলে ফেললেন তরুণী

হবু স্বামীর সঙ্গে ট্রেনে করে যাচ্ছিলেন তিনি। তরুণীর হাতে তখন জ্বলজ্বল করছে হিরের এনগেজমেন্ট রিং। অমন সুন্দর আংটি তিনি কিছুতেই কাউকে দেবেন না।

বিয়ের সব ঠিকঠাক। হবু স্বামীর সঙ্গে ট্রেনে করে যাচ্ছিলেন তিনি। ট্রেনে আচমকাই তাঁদের ঘিরে ফেলে বেশ কয়েকজন। তরুণীর হাতে তখন জ্বলজ্বল করছে হিরের এনগেজমেন্ট রিং।

ওই আংটি যে ওই খারাপ লোকগুলো কেড়ে নেবে তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি তাঁর। কিন্তু অমন সুন্দর এনগেজমেন্ট রিং তিনি কিছুতেই কাউকে দেবেন না। পালানোরও পথ নেই।

সময় নষ্ট না করে ঘেরা অবস্থাতেই হাতের আঙুল থেকে এনগেজমেন্ট রিংটা খুলে মখে পুড়ে দেন ওই তরুণী। তারপর গিলে নেন।

ঠিক এই সময়েই ঘুম ভেঙে যায় তাঁর। বুঝতে পারেন এতক্ষণ যা তাঁর সঙ্গে ঘটছিল তা বাস্তব নয়, স্বপ্ন। অনেকটা আশ্বস্ত হন জেনা ইভান্স নামের ওই তরুণী। কিন্তু পরক্ষণেই তাঁর নজর গিয়ে পড়ে হাতের আঙুলের দিকে।

একি! আংটি তো নেই! গেল কোথায় আংটিটা! একটু খোঁজার পর তিনি নিজই বুঝতে পারেন স্বপ্নের মধ্যেই আংটি তিনি সত্যিই খুলে ফেলেছিলেন আঙুল থেকে। আর সেটি গিলেও ফেলেছেন।

এক্স-রে করে দেখা যায় ইভান্সের পাকস্থলীতে রয়েছে ২.৪ ক্যারেটের হিরের ওই আংটি। স্বাভাবিক নিয়মে যদি আংটি বেরিয়ে যায় তার জন্য অপেক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন ইভান্স। কিন্তু তাতে কাজ না হওয়ায় অগত্যা অপারেশনের স্থির হয়।

অপারেশনও হয়। যা একেবারেই চাইছিলেন না ইভান্স। তবে অপারেশন সফল হয়। আংটি বার হয় পাকস্থলী থেকে। অপারেশনের পর যখন তাঁর ঘোর কাটে তখন প্রথমেই হাউহাউ করে কেঁদে ওঠেন ইভান্স। অবশ্যই আনন্দে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.