Kolkata

নির্বাচন প্রক্রিয়ায় হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ, বিজেপিকে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা

পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিজেপির করা মামলায় আগামী ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত যাবতীয় নির্বাচনী প্রক্রিয়ার ওপর স্থগিতাদেশ জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট। এই সময়কালের মধ্যে মনোনয়ন প্রত্যাহার সহ কোনও কাজ হবে না। রাজ্য নির্বাচন কমিশনও নির্বাচন সংক্রান্ত কোনও পদক্ষেপ করতে পারবেনা। আগামী ১৬ এপ্রিল ফের এই মামলার শুনানি হবে। তখনই পরবর্তী নির্দেশ দেবে আদালত। প্রয়োজনে ভোটের দিন পিছবে।

প্রসঙ্গত গত ৯ এপ্রিল ছিল পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন পেশের শেষ দিন। কিন্তু ওদিন রাত ৯টায় একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে রাজ্য নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দেয় মনোনয়ন পেশের শেষ দিন একদিন বর্ধিত করা হল। ১০ এপ্রিল বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৩টে পর্যন্ত ইচ্ছুক প্রার্থীরা এসডিও বা বিডিও অফিসে মনোনয়ন পেশ করতে পারবেন। রাতে এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর ফের ১০ এপ্রিল সকালে সেই বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। জানিয়ে দেয় মনোনয়ন পেশের দিন বর্ধিত করা হচ্ছে না। আর কোনও মনোনয়ন গ্রহণ করা হবে না।


আকর্ষণীয় খবর পড়তে ডাউনলোড করুন নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

বৃহস্পতিবার এই মামলার শুনানি চলাকালীন হাইকোর্ট কমিশনের কাছে জানতে চায় গত ৯ এপ্রিল বিকেল ৩টে থেকে ১০ এপ্রিল বিকেল ৩টে পর্যন্ত কতজন ইচ্ছুক প্রার্থী রাজ্য জুড়ে মনোনয়ন পেশ করতে এসেছিলেন। যদিও এ ব্যপারে কমিশনের আইনজীবী এদিন আদালতে সঠিক তথ্য তুলে ধরতে পারেননি। ফলে কমিশনকে আগামী ১৬ এপ্রিলের মধ্যে বিস্তারিত তথ্য জানিয়ে একটি রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তারপরই ওদিন এই মামলার ফের শুনানি হবে।

এদিন বিজেপির করা মামলা হলেও বিজেপিকে আদালতের রোষের মুখে পড়তে হয়। তথ্য গোপন করার অভিযোগে তাদের ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা ধার্য করে আদালত। জরিমানার দিকটি বাদ দিলে এদিনের আদালতের রায়কে রাজ্যবাসীর জয় হিসাবেই দেখছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *