Business

দেশের বিমানযাত্রীদের জন্য সুখবর, সুখবর বিমানসংস্থাগুলির জন্যও

২০২০ সালের ২৫ মার্চের পর এই সুখবরটা কবে শোনা যাবে সে অপেক্ষায় ছিলেন বিমানযাত্রীরা। অপেক্ষায় ছিল বিমানসংস্থাগুলি। অবশেষে সেই সুখবরটা এল।

২০২০ সালের ২৫ মার্চ। দেশজুড়ে করোনা নিয়ন্ত্রণে শুরু হয় লকডাউন। স্তব্ধ হয়ে যায় গোটা দেশ। মানুষ গৃহবন্দি হয়ে পড়েন। একটা চাপা আতঙ্ক গোটা দেশে পেয়ে বসে।

সেই কঠিন পরিস্থিতি থেকে ক্রমশ বেরিয়ে আসার আপ্রাণ লড়াই আজও অব্যাহত। সেই দমবন্ধ পরিস্থিতি এখন আর নেই। অনেক কিছুই স্বাভাবিক। তবে করোনা বিদায় নেয়নি। আবার করোনার প্রতিষেধক টিকাও এসেছে। বহু মানুষের দেহে সেই টিকা প্রদানও হয়ে গেছে।

২০২০ সালের ২৫ মার্চ বন্ধ হয়েছিল বিমান পরিষেবাও। সেই পরিষেবা ভারতের মধ্যে ফের চালু হয় ২৫ মে ২০২০ সালে। তবে সীমিত সংখ্যক যাত্রী নিয়ে। ৩৩ শতাংশ যাত্রীকে নিয়ে বিমান পরিষেবায় মেলে অনুমতি।

এরপর ধাপে ধাপে বিমানযাত্রীর সংখ্যা বাড়িয়েছে কেন্দ্র। গত অগাস্ট মাসে বিমানসংস্থাগুলি তাদের মোট যাত্রী পরিবহণ ক্ষমতার ৭২.৫ শতাংশ নিয়ে উড়তে পারছিল। তা সেপ্টেম্বরে বেড়ে হয় ৮৫ শতাংশ।

এবার কেন্দ্র ঘোষণা করল ১৮ অক্টোবর থেকে বিমানে ১০০ শতাংশ যাত্রী নিয়েই গন্তব্যে উড়ে যেতে পারবে বিমানসংস্থাগুলি। আর কোনও যাত্রী নিয়ন্ত্রণ থাকবে না। এটা অবশ্যই যাত্রীদের জন্য এবং বিমানসংস্থাগুলির জন্য সুখবর।

Air India
ফাইল : বেঙ্গালুরু বিমানবন্দরে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান, ছবি – আইএএনএস

কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে বিমানসংস্থাগুলি। কার্যত তারা হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে। যাত্রীরাও দীর্ঘদিন ধরে এই দাবি জানিয়ে আসছিলেন। অবশেষে বিমান যাত্রা আরও সহজ হল।

এই সিদ্ধান্তের পর টিকিট পেতেও সুবিধা হবে যাত্রীদের। দিওয়ালীর মত উৎসবের আগে এই সিদ্ধান্ত অবশ্যই যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button