Business

পেঁয়াজের দাম কমাতে পেঁয়াজের দাম অন্যত্র বাড়াল সরকার

পেঁয়াজের দাম এই উৎসবের মরসুমে সাধারণ মানুষের পকেটে ছেঁকা দিচ্ছে। এই অবস্থায় পেঁয়াজের দাম কমাতে অন্য রাস্তায় হাঁটল সরকার।

সাধারণ মানুষের রেহাই নেই। একটার দাম লাগামছাড়া অবস্থা থেকে কিছুটা কমে তো অন্যটা বেড়ে যায়। আর এভাবেই সারাবছরে নিত্যপ্রয়োজনীয় আনাজের কোনও না কোনওটা বেড়েই থাকে। টমেটোর দাম টানা ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকার পর যাও বা তা কিছুটা কমল তো পেঁয়াজের দাম পুজোর আগে থেকেই বাড়তে শুরু করে।

৫০ টাকা কেজি তো বটেই, এমনকি অনেক বাজারে তার চেয়েও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। আদার দাম তো যেমন চড়া তেমনই রয়ে গেছে। যদিও কাঁচা আদার দাম পুরনো আদার চেয়ে কিছুটা হলেও কম।

এদিকে পেঁয়াজের বাড়তে থাকা দাম নিয়ে আমজনতার অসন্তোষ টের পেয়ে এতদিন পর এবার পদক্ষেপ করল কেন্দ্র। পেঁয়াজের দামে রাশ টানতে পেঁয়াজের দাম অন্যত্র বাড়িয়ে দিল তারা।

কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে পেঁয়াজ রফতানির ক্ষেত্রে ন্যূনতম মূল্য নিতে হবে ৬৭ টাকা প্রতি কেজি। রফতানি মূল্য অবশ্য কেজি ধরে নয় প্রতি মেট্রিক টন পিছু ধার্য হয়। তাই কেন্দ্র প্রতি মেট্রিক টন পিছু দাম ধার্য করেছে ৮০০ ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৬৭ হাজার টাকা।

১ মেট্রিক টন মানে ১ হাজার কেজি। তাই প্রতি কেজির দাম ৬৭ টাকাই পড়ছে। বিদেশে পাঠাতে গেলে এই দাম নিতেই হবে। এভাবে রফতানি মূল্য বাড়িয়ে কার্যত দেশিয় বাজারে পেঁয়াজের দাম ধরে রাখতে চাইছে কেন্দ্র।

ন্যূনতম রফতানি মূল্য বা মিনিমাম এক্সপোর্ট প্রাইস নিয়ে এই নির্দেশ ২৯ অক্টোবর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বহাল থাকবে বলেও জানিয়েছে কেন্দ্র। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button