Business

চাই ১৯২ টন গোবর, এত গোবর কন্টেনারে ভর্তি করতে হিমসিম দশা

গরুর গোবর যে এত মূল্যবান তা কে বা জানত, কিন্তু এবার চাহিদা দেখে মাথায় হাত পড়ার অবস্থা। গোবর পাঠানোতে রাতদিন এক করছেন ব্যবসায়ীরা।

দেশে গরুর গোবরের কদর অনেকদিনের। গোবর থেকে ঘুঁটে, গোবর গ্যাস যেমন জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার হয়, তেমনই গোবর চাষের কাজেও লাগে। ভাল সার হয় গোবর থেকে।

এটা ভারতে প্রচলিত থাকলেও বিদেশে ছিলনা। কিন্তু হালে গবেষণা করে তারা জানতে পেরেছে গোবরের সুফল। তাই এবার ভারত থেকে গোবর আমদানি করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে তারা। ভারত থেকে অবশ্য এই প্রথম অন্য দেশে গোবর পাঠানো হল। এটা বৈদেশিক বাণিজ্যে ইতিহাস রচনা করল।

সম্প্রতি কুয়েত থেকে গোবরের একটি অর্ডার এসেছে। যা পূরণ করতে এখন হিমসিম খাচ্ছে জয়পুরের সংস্থা সানরাইজ এগ্রিল্যান্ড অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট রিসার্চ প্রাইভেট লিমিটেড।

কুয়েত থেকে ১৯২ টন গোবরের অর্ডার এসেছে। ভারত থেকে গোবর পাঠানোর সঙ্গে পরিচিত নন আমদানি-রফতানির সঙ্গে যুক্ত ব্যবসায়ীরা। তাই এবার এই কনসাইনমেন্ট পাঠাতে রীতিমত বেগ পাচ্ছেন তাঁরা। কন্টেনারে গোবর ভর্তি করার কাজ রাতদিন এক করে চলছে।

হাতে আর মাত্র ১ দিন। তারপরই প্রথম কনসাইনমেন্ট পাঠাতে হবে। জয়পুরের কাছে কনকপুরা রেলস্টেশন থেকে কন্টেনার রওনা দেবে ১৫ জুন। তার আগে কন্টেনারে যাতে গোবর ঠিকমত ভরা হয় সেদিকেও কড়া নজর রাখা হচ্ছে।

ভাল ফসল তো আছেই, তাছাড়া গোবরজাত পণ্য শারীরিক অসুস্থতাকে দূরে রাখে বলেও জানতে পেরেছেন গবেষকেরা। তাই সে কাজেও গোবর ব্যবহার হবে এবার দেশের বাইরে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.