Tuesday , May 21 2019
Brahmastra
ছবি – সৌজন্যে – ইন্সটাগ্রাম - @aliaabhatt

কুম্ভের শেষ রাতে ড্রোনের ‘ব্রহ্মাস্ত্র’

কুম্ভমেলা শেষ হয়েছে গত সোমবার। মহাশিবরাত্রির সেই পুণ্য তিথিতে কুম্ভের শেষ দিনে সেখানে হাজির হয়েছিল টিম ব্রহ্মাস্ত্র। রণবীর কাপুর, আলিয়া ভাট-এর সঙ্গে হাজির ছিলেন সিনেমাটির পরিচালক অয়ন মুখোপাধ্যায়। কুম্ভে আরতি যেমন করলেন তেমনই কুম্ভমেলার মত প্রাঙ্গণকে তাঁরা বেছে নিলেন এই সিনেমার প্রচারে। তাও আবার একদম অন্য ধরণের প্রচার। যা তাক লাগিয়ে দিয়েছে সন্ধে নামা কুম্ভে উপস্থিত লক্ষ লক্ষ মানুষকে।

সোমবার সন্ধেয় কুম্ভের আকাশে ভেসে বেড়াতে শুরু করে একের পর এক ড্রোন। সংখ্যায় ১৫০টি ড্রোন ছিল কুম্ভের আকাশে। সেই ড্রোনে জ্বলে ওঠে আলো। তারপর ড্রোনগুলি ভেসে ভেসে এক অপরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ইংরাজি হরফের জন্ম দিতে থাকে। আলোর সেইসব হরফ একসঙ্গে করে দাঁড়ায় একটি শব্দ। সিনেমার নাম ‘ব্রহ্মাস্ত্র’। পুণ্যার্থী থেকে আমজনতা। সকলে অবাক হয়ে দেখেন ত্রিবেণী সঙ্গমের সন্ধে নামা কালো জলের ওপর সন্ধের আকাশ জুড়ে যেন সন্ধ্যা প্রদীপের মেলবন্ধন। যা ভেসে ভেসে অনায়াসে লিখে দিল একটি সিনেমার নাম।

এমন এক প্রচার ভাবনায় কিন্তু তাক লাগিয়ে দিয়েছে টিম ব্রহ্মাস্ত্র। একে তারা বেছে নিয়েছে কুম্ভমেলার প্রাঙ্গণকে। তারওপর ড্রোন দিয়ে সিনেমার নাম রাতের আকাশে লিখে দেওয়া। এমন দুরন্ত ভাবনার জন্য ইতিমধ্যেই চর্চার প্রাণকেন্দ্রে পৌঁছেছে ব্রহ্মাস্ত্র। হঠাৎ করেই এই ইভেন্ট ব্রহ্মাস্ত্র নামে একটি সিনেমার জনপ্রিয়তাকে এক ধাক্কায় সারা দেশের মুখে মুখে ছড়িয়ে দিয়েছে।

(সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *