Sports

আড়াই বছর জেলে কাটাতে হবে টেনিসের অন্যতম কিংবদন্তিকে

টেনিসের অন্যতম কিংবদন্তি খেলোয়াড় তিনি। দেশের হয়ে অনেক সম্মান এনে দিয়েছেন তিনি। সেই কিংবদন্তি খেলোয়াড়কে এখন কাটাতে হবে জেলে।

টেনিস জগতের সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়দের দলে তিনি পড়েন। তাঁর নাম এখনও টেনিস জগত তো বটেই, এমনকি সাধারণ মানুষও এক ডাকে চিনতে পারেন।

সেই বিরল প্রতিভার অধিকারী প্রাক্তন টেনিস তারকাকে যেতে হল কারাগারের পিছনে। আগামী আড়াই বছর তাঁকে কাটাতে হবে সেখানে। ব্রিটেনের আদালত তাঁকে এই সাজা দিয়েছে।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

টেনিস জগতে জার্মানি থেকে যে তারকারা নিজেদের নামকে স্বর্ণাক্ষরে রেখে গেছেন তাঁদের অন্যতম বরিস বেকার। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি আড়াই মিলিয়ন পাউন্ডের সম্পত্তি ও লোনের কথা লুকিয়ে গিয়েছিলেন। কেন লুকিয়ে গিয়েছিলেন?

বরিসের অনেক দেনা রয়েছে। সেই দেনা যাতে তাঁর এই সব সম্পত্তি ও লোন থেকে আদায় করা না হয় সেজন্য তিনি তাঁর এই সম্পত্তি ও লোনের কথা লুকিয়ে যান।

২০১৭ সালে বরিস জানিয়েছিলেন যে তিনি কোনও দেনা ফেরত দিতে অপারগ। তাঁকে ঋণ পরিশোধে অপারগ হিসাবে ঘোষণাও করা হয়। অবশেষে কিন্তু সত্য সামনে এল।

সম্পত্তি লুকিয়ে যাওয়ার অভিযোগে আড়াই বছরের জেল হল ৫৪ বছরের বরিস বেকারের। অবশ্যই যা তাঁর ঝলমলে টেনিস কেরিয়ারের ওপর একটা কালো দাগ হয়ে গেল।

১৯৮৫ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে বরিস বেকার উইম্বলডন জেতেন। যা বিশ্বজুড়ে তাঁকে রাতারাতি পরিচিতি দেয়। প্রসঙ্গত ২০০২ সালেও মিউনিখ আদালত তাঁকে কর ফাঁকির অভিযোগে ২ বছরের কারাবাস শুনিয়েছিল। তবে সে যাত্রায় জরিমানা গুনে কারাবাস থেকে রেহাই পেয়েছিলেন বরিস। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *