World

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্রের ধারে ভেসে আসা রহস্যের সমাধান মিলল, জড়াল ভারতের নাম

সমুদ্রসৈকতে ভেসে আসা একটি রহস্যজনক অতিকায় বস্তুকে কেন্দ্র করে ক্রমশ কৌতূহল ঘনীভূত হচ্ছিল। অবশেষে তার কিনারা করতে গিয়ে আবার জড়িয়ে গেল ইসরোর নাম।

শান্ত সমুদ্রসৈকত আচমকাই অশান্ত হয়ে উঠেছিল। সমুদ্রের ঢেউ কি যেন ভাসিয়ে এনেছে। ঢেউয়ের তালে ভাসতে ভাসতে এসে তা আটকে পড়ে বালিতে। তারপর বালিতেই তা অল্প হেলে আটকে থাকে। যা চোখে পড়ার পর আতঙ্ক ছড়ায় সাধারণ মানুষের মধ্যে।

একটা বিশাল ধাতব সিলিন্ডারের মত দেখতে বস্তু। এমন এক বিশাল বস্তু যে সমুদ্রের ঢেউয়ের তালে ভেসে এসেছে তা ভেবেই অবাক হচ্ছেন অনেকে। বস্তুটি ঠিক কি বা কিসের অংশ তা নিয়ে কেউই নিশ্চিত করে কিছু বলে উঠতে পারছেন না।

অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাংশের গ্রিন হেড এলাকার ওই সমুদ্রতটে আটকে যাওয়া রহস্য বস্তুটি কোনও অন্য দেশের মহাকাশযানের অংশ হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করে অস্ট্রেলিয়ান স্পেস এজেন্সি। শুরু হয় রহস্য সমাধানের চেষ্টা। বেশ কয়েকদিনের চেষ্টার পর রহস্যের সমাধান করল অস্ট্রেলিয়ান স্পেস এজেন্সি।

এএসএ-র দাবি, ভেসে আসা এই বিশাল ধাতব বস্তুটি ভারতের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরো-র পাঠানো একটি রকেটের। পিএসএলভি বা পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল-এর অংশ এটি। যা ইসরো মহাকাশের দিকে পাঠিয়েছিল।


সেই রকেটের একটি অংশ সমুদ্রে এসে আছড়ে পড়ে। যা ভেসে আসে এই অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র সৈকতে। তারা সঠিক অনুমান করেছে কিনা তা জানার জন্য ইসরোর সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ান স্পেস এজেন্সি যোগাযোগও করেছে। এখন ইসরো নিশ্চিত করতে পারে ওই ধাতব বস্তুটি তাদেরই রকেটের কিনা।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button