Sports

চলে গেলেন ময়দান কাঁপানো ফুটবলার, নামল শোকের ছায়া

কলকাতা ফুটবলে ফের ইন্দ্রপতন। একসময় মোহনবাগান এবং ইস্টবেঙ্গলে দাপিয়ে খেলা অশোক চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু হল শনিবার। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। তাঁর স্ত্রী রয়েছেন। আছেন তাঁর একমাত্র ছেলে বিখ্যাত মিউজিসিয়ান সন্দীপ চট্টোপাধ্যায়। অশোক চট্টোপাধ্যায় মোহনবাগানের হয়ে খেলেছেন ১৯৬১ সাল থেকে ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত। ১৯৭২-এ ফের এক বছরের জন্য সবুজ মেরুনে ফেরেন। মোহনবাগানের হয়ে ৮৫টি গোল করেছেন তিনি। মোহনবাগান ক্লাব তাঁকে গত বছরই মোহনবাগানের লাইফ টাইম অ্যাচিভমেন্ট পুরস্কার দেয়।

মোহনবাগানের হয়ে সবচেয়ে বেশি দিন খেললেও অশোক চট্টোপাধ্যায় ইস্টবেঙ্গলেও খেলেছেন। ১৯৬৯, ১৯৭০ ও ১৯৭১ সালে তিনি লাল হলুদ জার্সিতে ময়দান দাপান। ইস্টবেঙ্গলের হয়ে খেলে তিনি গোল করেন ৩৯টি। এতো গেল ময়দানে তাঁর ২ প্রধানে খেলার ইতিহাস। এর বাইরে ভারতীয় দলে বহুদিন ফুটবল খেলেছেন তিনি। তাঁর ভারতের হয়ে ডেবিউ হয় জাপানে মারডেকা কাপে পিকে বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবর্ত হিসাবে। সেটা ছিল ১৯৬৫ সালের কথা। তারপর থেকে ভারতীয় দলে টানা খেলেছেন তিনি। ৩০ বার ভারতে জার্সিতে মাঠে নামেন।

১৯৬৫ ও ১৯৬৬ সালে মারডেকা কাপে ব্রোঞ্জ পদক জয়ী ভারতীয় দলে ছিলেন অশোক চট্টোপাধ্যায়। বাংলার হয়ে সন্তোষ ট্রফিতেও খেলেছেন তিনি। তাঁর মৃত্যুর খবরে শোক প্রকাশ করেছেন অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট প্রফুল্ল প্যাটেল। শোক প্রকাশ করেছেন এআইএফএফ-এর সাধারণ সম্পাদক কুশল দাস। কুশলবাবু লেখেন, অশোক চট্টোপাধ্যায় তাঁর সাফল্যের জন্য চিরদিন বেঁচে থাকবেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button