World

পার্কে খেলার ছলে এক বালিকা যা পেল তা দেখে আপ্লুত বিশ্ববাসী

তার জন্মদিন ছিল। সেজন্য পরিবারের সঙ্গে পার্কে কার্যত বেড়াতেই এসেছিল সে। কিন্তু কুড়িয়ে পেয়ে গেল এক অমূল্য রতন। যা গোটা দেশবাসীকে চমকিত করেছে।

জন্মদিন বলে কথা। তায় আবার মাত্র ৭ বছর বয়সী এক বালিকার। এই বয়সে তার জন্মদিনের গুরুত্ব অপরিসীম। তার কাছে সেটা সেরা উৎসবের সমান। মেয়ের জন্মদিনে পরিবার তাকে নিয়ে গিয়েছিল পার্কে বেড়াতে। সে পার্ক আবার মামুলি পার্ক নয়।

ওই পার্কে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত হিরে ব্যাপারীরা হিরে খনন করে বার করতেন। ১৯৭২ সালে সেটিকে সরকার একটি পার্ক করে দেয়। সেখানে তাই এখনও টুকটাক এখানে ওখানে হিরে পাওয়া যায়। ওই বিশাল এলাকায় একটি গর্তের মধ্যে থেকে এমনই একটি হিরে পাওয়া গেছে। যা সেখানে কারও নজর এড়িয়ে পড়েছিল।

হিরেটি খয়েরি আভার হিরে। ২.৯৫ ক্যারেটের বড়সড় হিরেটি একটি কড়াইশুঁটির দানার মত চেহারার। এই পার্কে অবশ্য চলতি বছরেই আরও একটি হিরে একজন পেয়েছিলেন। সেটি এটার চেয়েও বড় ছিল।

এটি চলতি বছরে ওই পার্কে বেড়াতে আসা পর্যটকদের পাওয়া দ্বিতীয় বড় হিরে, যা উদ্ধার হল এক বালিকার হাতে। তাও আবার তার জন্মদিনে।


এভাবে খেলার ছলে একটি এত বড় মাপের হিরে প্রাপ্তি বালিকাকে রাতারাতি আমেরিকার আরকানসাস স্টেট পার্কে আসা মানুষজনের কাছেই নয়, গোটা আমেরিকার কাছে জনপ্রিয় করে দিয়েছে।

তার অনন্য প্রাপ্তির কারণেই এই রাতারাতি পরিচিতি। একটি হিরে সেই সঙ্গে মানুষের কাছে পরিচিতি, ৭ বছরের ওই বালিকা জীবনে এক মনে রাখার মত জন্মদিন পালন করল এবার। যা গোটা বিশ্বের তাবড় সংবাদপত্রের খবরও হল।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button