National

জঙ্গিহানার কবলে অমরনাথের পুণ্যার্থীরা, মৃত ৭

অমরনাথ যাত্রীদের ওপর জঙ্গিদের গুলিবর্ষণের ঘটনার পিছনে রয়েছে লস্কর-ই-তৈবা। মাস্টারমাইন্ড পাক সন্ত্রাসবাদী ইসমাইল। এমনই দাবি করল জম্মু কাশ্মীর পুলিশ। সোমবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ অনন্তনাগের বাতেনগু ও খানাবাল এলাকায় পাহারা দিচ্ছিল পুলিশ। আচমকাই জঙ্গিদের একটি দল অত্যাধুনিক অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। পাল্টা গুলি চালায় পুলিশও। শুরু হয় জঙ্গি-পুলিশ গুলির লড়াই।

এই গোলাগুলির মাঝে আচমকাই পড়ে যায় একটি পুণ্যার্থী বোঝাই বাস। ফলে জঙ্গিদের নিশানায় চলে আসে সেটি। জঙ্গিদের গুলিতে ৭ জনের মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থলেই ২ জন ও বাকিদের হাসপাতালে মৃত্যু হয়। জঙ্গিদের গুলিতে ৩ জন পুলিশকর্মী সহ ৩২ জন গুরুতর আহত হন। তাঁদের বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ফলে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। এদিকে ঘটনার পরই দিল্লিতে তৎপরতা তুঙ্গে ওঠে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অফিসে রাতেই হাজির হন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। পুরো পরিস্থিতির ওপর কন্ট্রোল অফিস থেকে নজরদারি শুরু করেন। রাতের অন্ধকারে অপারেশন চালানো মুশকিল হওয়ায় জম্মু হাইওয়ে বন্ধ রাখে পুলিশ। পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে পুলিশ। সব রাস্তায় শুরু হয় গাড়ি তল্লাশি। এদিকে আহত অমরনাথ যাত্রীদের চিকিৎসার জন্য বিমানে দিল্লি উড়িয়ে আনা হয় এদিন।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button