Kolkata

ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস

উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে। ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস।

কলকাতা : ভাদ্র শেষ। শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে আশ্বিন মাস। শরৎকালের অর্ধেক অতিবাহিত। এরমধ্যে মেঘ রোদের খেলা, মাঝেমধ্যে বৃষ্টি চলছে। যদিও সেপ্টেম্বর, অক্টোবর এমনকি নভেম্বরেও এ রাজ্যে নিম্নচাপের প্রভাবে বৃষ্টি দেখা যায়।

খাতায় কলমে ধরা হয় ভারতে সেপ্টেম্বরের শেষ মানেই বর্ষা বিদায়। কিন্তু এ রাজ্যে নিম্নচাপের প্রভাব থেকে যায়। ফলে মাঝে মধ্যেই নিম্নচাপের জেরে টানা বৃষ্টির মধ্যে পড়েন মানুষজন। আগামী রবিবার এমনই একটি নিম্নচাপ ঘনীভূত হতে চলেছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে তা রবিবারের মধ্যে নিম্নচাপে পরিণত হয়ে বৃষ্টি শুরু করবে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে। যার প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টি শুরু হবে।

কোথাও মাঝারি, তো কোথাও ভারী বৃষ্টি হবে। বাংলাদেশ সংলগ্ন জেলাগুলিতে রবিবার ও সোমবার ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ভাল বৃষ্টি চলবে।

মঙ্গলবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি কিছুটা কমে আসলেও পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে বৃষ্টি বাড়বে। অর্থাৎ পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুরের মত জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টি হবে মঙ্গলবার।

এভাবেই টানা ৩ দিন বৃষ্টি ঝরিয়ে দুর্বল হবে নিম্নচাপ। ফলে রবিবার থেকে টানা ৩ দিন বৃষ্টির মধ্যে পরতে চলেছে দক্ষিণবঙ্গ। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হতে পারে সোমবার বলে মনে করছে হাওয়া অফিস।

এবার আশ্বিন মাস মল মাস। ফলে এই মাসে পুজোপার্বণ নেই। এবার তাই দুর্গাপুজোও পিছিয়ে গিয়ে কার্তিক মাসে হচ্ছে। অক্টোবরের শেষের দিকে।

প্রতিবার দুর্গাপুজোয় নিম্নচাপের প্রভাবে বৃষ্টির একটা আশঙ্কা কাজ করে। দুর্গাপুজোয় বৃষ্টি হয়ও অনেক সময়। এবার হয়তো সে সম্ভাবনা কম হতে পারে।

এদিকে এবার ভাল বর্ষার পূর্বাভাস দিয়েছিল হাওয়া অফিস। বর্ষার প্রথম ২ মাসে দক্ষিণবঙ্গে তেমন ভাল বৃষ্টি হয়নি। ঘাটতি ছিল। কিন্তু তারপর এক এক করে আসা নিম্নচাপ সেই ঘাটতি পুষিয়ে দিয়েছে। ফের একটি নিম্নচাপ ঘাটতি মুছে দেবে বলেই মনে করা হচ্ছে। এদিকে নিম্নচাপের কথা মাথায় রেখে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button