Kolkata

বছর শেষে কেমন থাকবে ঠান্ডার দাপট, মিলল পূর্বাভাস

বছর শেষ হওয়া এখন কিছু সময়ের অপেক্ষা। রবিবার বছরের শেষ দিন। সোমবার নতুন বছরের প্রথম দিন। কেমন থাকবে এই আনন্দঘন সময়ে ঠান্ডার দাপট। মিলল পূর্বাভাস।

২০২৩ সাল শেষ হতে আর কিছু সময়ের অপেক্ষা। তারপরই শুরু হবে নতুন বছর ২০২৪। তার আগে বছর শেষের আনন্দটা সিংহভাগ পৃথিবীই তারিয়ে উপভোগ করে। সেই আনন্দ উৎসবে শামিল হয় বাংলাও। এবার বছরের শেষটা পড়েছে আবার শনি ও রবিবার। ফলে তথাকথিত কাজের চাপ থাকার সম্ভাবনা প্রায় নেই।

যার ফলে শনিবার থেকেই মানুষ আনন্দে মেতে উঠবেন। বছর শেষের আনন্দকে আরও আনন্দময় করে তোলে ঠান্ডা। দারুণ ঠান্ডায় রঙিন শীতের পোশাকে শরীর মুড়ে নরম রোদে একটা অন্যরকম দিন কাটানোর মজাই আলাদা।

ঠান্ডা না থাকলে বছর শেষের আনন্দটাই মাটি। কিন্তু এবার যা পরিস্থিতি তাতে ঠান্ডা কি পড়বে? সেটাই এখন সকলের প্রশ্ন। আবহাওয়া দফতর অবশ্য তেমন কোনও আশার কথা শোনাতে পারেনি।

বাংলাদেশের ওপর যে ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে তার জেরে বাংলায় প্রচুর পরিমাণে পুবালি হাওয়া প্রবেশ করছে। যা উত্তর পশ্চিম থেকে বয়ে আসা কনকনে ঠান্ডা হাওয়াকে এ রাজ্যে প্রবেশে বাধা দিচ্ছে। যার ফলে ঠান্ডা ঢুকছে না। তাই ঠান্ডাও পড়ছে না।


মধ্য পৌষে যেখানে চুটিয়ে শীতের আমেজ থাকা উচিত সেখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রাও স্বাভাবিকের চেয়ে ৪ ডিগ্রি বেশি। সারাদিনে খুব কম সময়ই গরম পোশাক সেভাবে প্রয়োজন পড়ছে। তাও খুব ভোর বা রাতের দিকেই একটু গরম পোশাক লাগছে। বাকি সময়ে লাগছে না।

আবহবিদেরা পরিস্থিতি দেখে মনে করছেন ২০২৩ সালে আর ঠান্ডা পড়ার কোনও সম্ভাবনা তেমন নেই। বছরান্ত এবং বছর শুরু কাটবে এমন এক অপেক্ষাকৃত গরম আবহাওয়াতেই।

নতুন বছরের প্রথম দিকে ফের ফিরতে পারে শীতের আমেজ। কিন্তু বছর শেষের আনন্দকে এ রাজ্যে শীতের পরশে আনন্দময় করে তোলা এ বছর আর হচ্ছেনা।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button