Business

ইয়াহুর হাতবদল, একটা যুগের অবসান

৪৮৩ কোটি মার্কিন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় ৩২ হাজার ৩৬১ কোটি টাকায় ইয়াহুর ইন্টারনেট ব্যবসা কিনে নিল আর এক মার্কিন সংস্থা ভেরিজোন কমিউনিকেশনস। আধুনিক ইন্টারনেট প্রযুক্তির সার্চ ইঞ্জিন হিসাবে প্রথম সামনে এসেছিল ইয়াহুই। তারপর থেকে তথ্যের খোঁজে ইন্টারনেটের জগতে মানুষ ভরসা করতেন ইয়াহুকেই। ই-মেলেও যুগান্তর সৃষ্টি করেছিল এই মার্কিন সংস্থা। সাথে ছিল ইয়াহু মেসেঞ্জার, এক যুগ আগে ইন্টারনেট আড্ডার জনপ্রিয়তম মাধ্যম। ধীরে ধীরে গুগল ইয়াহুর জনপ্রিয়তা অনেকটা শুষে নিলেও নিজস্ব কৌলিন্যে এখনও মানুষের মনে অমলিন ইয়াহু। কার্যত ইন্টারনেটকে নিজের করে মানুষ চিনতেই শিখেছিল ইয়াহুর হাত ধরে।

১৯৯৪ সালে স্ট্যানফোর্ডের দুই ছাত্র জেরি ইয়াং ও ডেভিড ফিলোর উদ্ভাবনী ক্ষমতা জন্ম দেয় ইয়াহুর। তারপর থেক ক্যালিফোর্নিয়ার এই সংস্থাকে কখনও পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। তবে গুগল, ফেসবুকের রমরমায় ইদানিং সমস্যায় ভুগছিল ইয়াহু। হালে রাতারাতি বিশাল সংখ্যক কর্মী ছাঁটাই করে ব্যয় সংকোচের রাস্তায় হাঁটাও শুরু করেছিল সংস্থা। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। ইয়াহু যে বিক্রি হচ্ছে তা আগেই জানতেন সকলে। অপেক্ষা ছিল সময়ের। সেটা গত সোমবার ভেরিজোনের ঘোষণার হাত ধরে সম্পূর্ণ হল। ইন্টারনেট ব্যবসা থেকে হাত গুটলেও এশিয়ায় ইয়াহুর লগ্নি ব্যবস্থা অক্ষতই থাকছে বলে সংস্থার তরফে বিনিয়োগকারীদের আশ্বস্ত করা হয়েছে।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button