State

চৈত্রের শুরুতেই মরসুমের প্রথম কালবৈশাখী, বেজায় খুশি মানুষজন

খাতায় কলমে চৈত্র, বৈশাখ মাস কালবৈশাখীর মাস। সেই বইয়ের হিসেব মেনে চৈত্রের শুরুতেই কালবৈশাখীর দাপটে বিধ্বস্ত দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলা। কলকাতায় আবার একেবারে কালবৈশাখীর তাণ্ডব না হলেও শনিবারের সন্ধেটা মনোরম করে দিল ঝোড়ো ঠান্ডা হাওয়া। সঙ্গে টিপটিপ বৃষ্টি।

শনিবার শেষ বিকেলেই বর্ধমান, বাঁকুড়া ও হুগলির একটা বড় অংশে কালবৈশাখী ঝড় শুরু হয়। এই মরসুমের প্রথম কালবৈশাখীতে ধুলোর কুণ্ডলী ওঠে। অনেক গাছে ছোটছোট আম হয়েছিল। যার বেশ কিছু ঝড়ে পড়ে। ঝড়ের দাপটে সকলেই ঘরে ঢুকে পড়েন। সঙ্গে ছিল প্রবল বজ্রনির্ঘোষ। ফলে অনেক জায়গা মানুষ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের মুখে পড়েন। তারপরই শুরু হয় বৃষ্টি। অনেক জায়গায় এদিন শিলাবৃষ্টিও হয়েছে। বৃষ্টির পরপরই তাপমাত্রার পারদ এক ধাক্কায় অনেকটা নেমে যায়।

কলকাতা, হাওড়া, দুই ২৪ পরগনা বা নদিয়ায় এমন প্রবল ঝড় না হলেও ঝোড়ো হাওয়া বয়েছে। সঙ্গে টিপটিপ বৃষ্টিও হয়েছে। আকাশ ছিল মেঘে ঢাকা। সঙ্গে ছিল বিদ্যুতের ঝলকানি। শনিবারের রাতে এমন দুরন্ত আবহাওয়া তারিয়ে উপভোগ করেছেন শহরবাসী।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button