National

৭৬ বছরের রেকর্ড ভেঙে গরম দিল্লিতে, পুড়ছে কলকাতাও

৭৬ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিল দিল্লির গরম। দিল্লিতে এদিন ৪০ ডিগ্রি পার করেছে পারদ। অন্যদিকে কলকাতাও পুড়ছে গরমে। কলকাতায় চড়ছে পারদ।

নয়াদিল্লি : কলকাতায় হোলির দিন ছিল ৩৬ ডিগ্রির ওপর পারদ। তা বেড়ে ৩৮ হতে পারে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া দফতর। এমনকি সেখানেই থেমে না থেকে তা আগামী দিনে আরও বাড়বে বলেও মনে করছেন আবহবিদেরা।

ইতিমধ্যেই কলকাতায় বেলা বাড়লে আর রাস্তায় থাকা যাচ্ছেনা। রোদ যেন ঝলসে দিচ্ছে শরীর। মার্চ এখনও শেষ হয়নি। তাতেই এমন রোদে পুড়ছে মহানগরী। মানুষের চিন্তা তাহলে গ্রীষ্মে কী হবে!

কলকাতা যখন পুড়ছে তখন দিল্লি আরও একধাপ এগিয়ে গেছে চৈত্রেই। দিল্লি গতদিন ৪০ ডিগ্রি পার করেছে। প্রবল গরমে মানুষজন বেলা বাড়লে এখনই ঘরে আশ্রয় নিচ্ছেন। রাস্তায় থাকা থেকে বিরত থাকছেন। আর যাঁদের বাধ্য হয়ে থাকতে হচ্ছে তাঁরা হাত-মুখ সহ গোটা শরীর ঢেকে দ্রুত কাজ সেরে ছাওয়ায় যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

রেকর্ড বলছে মার্চ মাসে দিল্লির পারদ এবার যেখানে চড়ল তা গত ৭৬ বছরে চড়েনি। ফলে সেদিক থেকে দিল্লির গরম ইতিমধ্যেই একটি রেকর্ড গড়ে ফেলেছে।


হোলিতে ৪০.১ ডিগ্রির চড়েছে পারদ। ১৯৪৫ সালের পর মার্চে এই উচ্চতায় দিল্লির পারদ মার্চ অন্তত পৌঁছতে পারেনি। ১৯৪৫ সালে মার্চে দিল্লির সর্বোচ্চ পারদ চড়েছিল ৪০.৫ ডিগ্রি। সেটাই এখনও রেকর্ড।

আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে দিল্লিতে হোলির দিন যে গরম রেকর্ড হয়েছে তা স্বাভাবিকের চেয়ে ৮ ডিগ্রি বেশি। ফলে সেখানে চরম তাপপ্রবাহ হচ্ছে বলে মেনে নিয়েছেন আবহবিদেরা। কারণ খাতায় কলমে স্বাভাবিকের চেয়ে ৫ ডিগ্রি পারদ বেশি থাকলে সেখানে তাপপ্রবাহ হচ্ছে বলে মান্যতা দেওয়া হয়। আর সেখানে দিল্লি তো ৮ ডিগ্রি বেশি। ফলে সহজ কথায় পুড়ছে দিল্লি।

এবার আবার কোঙ্কণ উপকূল জুড়ে চরম গরম পড়বে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া দফতর। ইতিমধ্যেই তার আভাস মিলছে। বাণিজ্যনগরী মুম্বইয়ের পারদ কিন্তু চড়ছে। সেখানেও গরমে মানুষের এখনই হাঁসফাঁস দশা। বেলা বাড়লে মুম্বইয়ের রাস্তা ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে অনেকটাই। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button