World

রাস্তাধরে ছুটে আসছে ভিনগ্রহের যান, ভয় নিয়েই দাঁড় করাল পুলিশ

ভিনগ্রহের জীবরা একধরনের গোলাকার উড়ন্ত চাকতির মত সসার ব্যবহার করে যাতায়াতের জন্য। তা অত্যন্ত আধুনিকও। এই বদ্ধমূল ধারনাকে সত্যি হতে দেখলেন কয়েকজন পুলিশকর্মী।

ফাঁকা রাস্তা ধরে একের পর এক গাড়ি ছুটে যাচ্ছে। কোথাও কোনও সমস্যা বা কোনও গাড়ি বেয়াদবি করছে কিনা সেসব দেখার জন্য রাস্তায় পুলিশের আনাগোনা লেগে থাকে। নজরদারি চলে। এমনই চলছিল। আচমকা টহলরত পুলিশদের নজরে পড়ে দূর থেকে একটা গোলাকার সসার ছুটে আসছে।

নিজেদের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলেননা তাঁরা। এতদিন ভিনগ্রহীদের কথা শুনেছেন। বিভিন্ন বইয়ের পাতায় বা সিনেমায় ভিনগ্রহী যান ইউএফও দেখেছেন।

গোলাকার অত্যন্ত আধুনিক একটি যান। যা আকাশে উড়তে পারে। তার চারধার দিয়ে প্রচুর তীব্র আলো বার হয়। তার গতিও ভয়ংকর। হুবহু এক সসার তাঁদের দিকে এগিয়ে আসছে রাস্তা দিয়ে।

United States of America
অদ্ভুতদর্শন যান, ছবি – সৌজন্যে – ফেসবুক – @ccsosherifflayman ও @Oklahoma.Highway.Patrol

পুলিশ আধিকারিকরা প্রাথমিক হতবাক ভাব কাটিয়ে দ্রুত তাঁদের কর্তব্যে মন দেন। দাঁড় করান ওই সসারকে। ধাতব পাতে মোড়া রূপোলী রংয়ের সসারটি দেখে যে কেউ বিশ্বাস করে নেবেন ওটা অন্য গ্রহের প্রাণিদের যান।


ভিতর থেকে বেরিয়েও আসতে পারে ভিনগ্রহীরা। তেমন আশঙ্কা নিয়েই পুলিশ আরোহীদের বেরিয়ে আসার ইঙ্গিত করে। তাঁরা বেড়িয়েও আসেন। দেখা যায় কোনও ভিনগ্রহী প্রাণি নয়, ২ মহিলা বসে আছেন ভিতরে।

কেন তাঁরা এমন উদ্ভট যানে চেপে রাস্তায় যাচ্ছেন জানতে চাওয়ায় তাঁরা জানান, ইউএফও বা ভিনগ্রহীদের যান সংক্রান্ত একটি উৎসবে শামিল হতেই তাঁদের এই আজব যানে চড়ে গন্তব্যের দিকে যাওয়া। পুলিশ অবশ্য এটা শোনার পর আর শাস্তির পথে হাঁটেনি। কেবল সতর্ক করে ছেড়ে দেয়। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকার ওকলাহোমা ও মিসৌরিতে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button