World

সরষের তেলের এত গুণ, তাও এসব জায়গায় তা নিষিদ্ধ

সরষের তেলের গুণের কথা অনেকেই জানেন। ভারতের মত দেশে রান্নায় সরষের তেলের বহু ব্যবহার প্রচলিত। কিন্তু সেই সরষের তেলই কিছু জায়গায় খাওয়া নিষিদ্ধ।

ভারতের একটা বড় অংশের আমজনতার রান্নাঘরে সরষের তেল অবশ্যই মজুত থাকে। ভোজ্য তেল হিসাবে সরষের তেলের ব্যবহার নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। সরষের তেল খাওয়া উপকারিও বলা হয়। বাঙালি পরিবারে রান্নার স্বাদ অনেকটাই নির্ভর করে খাঁটি সরষের তেলের ওপর।

সেই সরষের তেল কিন্তু আমেরিকা, কানাডা বা ইউরোপে গিয়ে রান্নার জন্য খুঁজলে পাওয়া যাবেনা। কারণ সেখানে সরষের তেল খাওয়া নিষিদ্ধ।

সরষের তেল ভারত সহ বিভিন্ন দেশে যেখানে এত প্রচলিত সেখানে আমেরিকা বা ইউরোপ তা খাওয়া নিষিদ্ধ করল কেন? অনেক গুণ থাকা সত্ত্বেও আমেরিকা বা ইউরোপে সরষের তেল খাওয়া নিষিদ্ধ করার জন্য দায়ী হল সরষের তেলে থাকা ইরুসিক অ্যাসিড।

সরষের তেলে অনেক বেশি পরিমাণে ইরুসিক অ্যাসিড থাকে বলে দাবি করেই ইউরোপ ও আমেরিকায় এই তেল খাওয়া মানা। মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের দাবি সরষের তেলে থাকা এই ইরুসিক অ্যাসিড সহজে হজম হয়না। এটা মস্তিষ্কের কোষের জন্য অপকারি।


নানা মানসিক ব্যাধির জন্যও এফডিএ এই ইরুসিক অ্যাসিডকে কাঠগড়ায় তুলেছে। এছাড়া এই ইরুসিক অ্যাসিড শরীরের স্থূলতা বৃদ্ধি করে বলেও দাবি তাদের।

সব মিলিয়ে সরষের তেলে থাকা এক ধরনের ফ্যাটি অ্যাসিড ইরুসিক অ্যাসিডের জন্য আমেরিকা, কানাডা ও ইউরোপে সরষের তেল খাওয়া নিষিদ্ধ। তবে সরষের তেল গায়ে মাখায় সেখানে কোনও বাধা নেই।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button