National

সওয়া ১২টায় মুখ্যমন্ত্রী বাজালেন শাঁখ, সন্ধেয় হলোগ্রাম মূর্তি উন্মোচনে প্রধানমন্ত্রী

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীতে সকাল থেকে সন্ধে, কলকাতা থেকে দিল্লি, মুখ্যমন্ত্রী থেকে প্রধানমন্ত্রী, সম্মান প্রদর্শনে ব্যস্ত রইলেন সকলেই।

বেলা তখন সওয়া ১২টা। ১৮৯৭ সালের এই দিনটায় কটকে ঠিক ওই সময় ভূমিষ্ঠ হন ভারতের বীর সন্তান নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। তাঁর সেই জন্ম সময়কে সম্মান জানিয়ে তাঁর জন্মবার্ষিকীতে ঠিক ওই সময় বেজে ওঠে সাইরেন। অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৈরি ছিলেন শঙ্খ হাতে। তিনি নিজেই বাজালেন শাঁখ। সম্মান জানালেন নেতাজিকে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী ময়দানে নেতাজি মূর্তিতে পুষ্পস্তবক দিয়ে সম্মান জানান। সেখানেই সওয়া ১২টায় শাঁখ বাজান তিনি।

এদিন সকালে যখন মুখ্যমন্ত্রী এ রাজ্যে পালন করলেন নেতাজির জন্মবার্ষিকী তখন এদিনই সন্ধের মুখে দিল্লির ইন্ডিয়া গেটে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে নেতাজির একটি হলোগ্রাম মূর্তির উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বেজে ওঠে আজাদ হিন্দ ফৌজের সঙ্গীত কদম কদম বাড়ায়ে যা। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতাজির অবদান তুলে ধরেন।

রবিবার মেঘলা দিনে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মবার্ষিকী পালনে কিন্তু খামতি ছিলনা। শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে নেতাজি মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানান রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। পরে সেখানেই মাল্যদান করেন কলকাতার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ, মন্ত্রী শশী পাঁজা।

অন্যদিকে এদিন বিজেপি, কংগ্রেসের তরফেও নেতাজি জন্মবার্ষিকী শ্রদ্ধার সঙ্গে পালন করা হয়। মহাজাতি সদনে নেতাজির জন্মবার্ষিকী পালিত হয় শ্রদ্ধার সঙ্গে। কলকাতার প্রাক্তন মেয়রও ছিলেন নেতাজি। ফলে পুরসভায় এদিন নেতাজিকে যথাযোগ্য সম্মান জানান মেয়র ফিরহাদ হাকিম। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.