World

ধর্ষণের অধিকারই পারিশ্রমিক!

দক্ষিণ সুদানে সরকারি সেনাদের সাহায্যকারী মিলিশিয়াদের কোনও পারিশ্রমিক নয়, পারিশ্রমিক হিসাবে দেওয়া হচ্ছে দেদার ধর্ষণের অধিকার। রাষ্ট্রসংঘের এমই এক চাঞ্চল্যকর রিপোর্টে চোখ কপালে তুলে দিয়েছে গোটা বিশ্বের।

রাষ্ট্রসংঘ জানিয়েছে, সুদান থেকে দক্ষিণ সুদান আলাদা হয়ে যাওয়ার পর থেকে দেশটা গৃহযুদ্ধে বিধ্বস্ত। বিরোধীদের রুখতে একযোগে কাজ করছে সেনা ও মিলিশিয়া। শিশু থেকে বৃদ্ধ কেউই রেহাই পাচ্ছে না তাদের অত্যাচারের হাত থেকে। কুচি কুচি করে কেটে ফেলা থেকে শুরু করে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া, মালবাহী জাহাজের কন্টেনারে ঢুকিয়ে দম বন্ধ করে মেরে ফেলা থেকে নির্মম অত্যাচার সবই চালাচ্ছে সেনা ও মিলিশিয়া। সেইসঙ্গে রয়েছে দেদার ধর্ষণ।

রাষ্ট্রসংঘের তরফে জানান হয়েছে, মিলিশিয়াদের সরকারি সেনার সঙ্গে কাজ করার কোনও পারিশ্রমিক দেওয়া হচ্ছে না। সে জায়গায় পারিশ্রমিক হিসাবে দেওয়া হয়েছে অবাধ ধর্ষণের ছাড়পত্র। ফলে তারা ইচ্ছেমত দেশ জুড়ে গ্রামে শহরে ধর্ষণ করে বেড়াচ্ছে। এমনকি নিজেদের পাশবিকতা দেখানোর জন্য বাবা-মাকে দাঁড় করিয়ে তাঁদের সামনেই সন্তানদের ধর্ষণ করছে মিলিশিয়ারা। সার্বিক পরিস্থিতির একটি পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রসংঘের হাতে তুলে দিয়েছেন পর্যবেক্ষকরা।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button