World

বদলে গেছে চেহারা, অন্তরাল থেকে সামনে এলেন পুতিনের রহস্যময়ী প্রেমিকা

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে একাধিক নারীর যোগ বারবার খবরে উঠে এসেছে। সবচেয়ে বেশি চর্চা হয়েছে এলিনা কাবায়েভাকে নিয়েই। এবার তিনি সামনে এলেন।

পুতিনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা প্রায় সকলের জানা। অলিম্পিকস-এর আসরে জিমন্যাস্টিকস-এ একসময় রাশিয়াকে সোনার পদক এনে দিয়েছিলেন এলিনা কাবায়েভা। রাশিয়ার সেই সোনার মেয়ে এক সময় পুতিনের বান্ধবী হয়ে ওঠেন। তারপর ঘনিষ্ঠতা আরও বাড়ে।

বলা হয় পুতিন ও এলিনার ৪ সন্তান রয়েছে। কিন্তু না এলিনাকে স্ত্রীর মর্যাদা আর না ওই ৪ সন্তানকে পিতার পরিচয় দিয়েছেন পুতিন। তবে এলিনাকে তুলোয় মুড়ে রেখেছেন তিনি।

এমনকি এটাও শোনা যাচ্ছিল যে ইউক্রেনের সঙ্গে যুদ্ধ শুরুর পর এলিনাকে সুইৎজারল্যান্ডের একটি সুইটে লুকিয়ে রেখেছিলেন পুতিন। আবার অনেকে বলেন যে সুইৎজারল্যান্ড নয় সার্বিয়ার একটি বাঙ্কারে লুকিয়ে ছিলেন এলিনা।

পুতিনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পর এলিনাকে না দেখা গেছে কোনও খোলা রাস্তায়, না কোনও শপিং মলে, না অন্য কোথাও। সমাজ থেকে দূরে এলিনা এক রহস্যময়ী নারীতে পরিণত হন। তাঁকে নিয়ে নানা কাহিনি তৈরি হতে থাকে।


অবশেষে ৩৮ বছরের সেই এলিনা কাবায়েভার দেখা মিলল। মস্কোয় একটি জুনিয়র স্তরের জিমন্যাস্টিকস প্রতিযোগিতায় এসেছিলেন তিনি। তবে তাঁর মুখ অনেকটাই বদলে গেছে।

বিভিন্ন মহলের মতে, পুতিন যাঁর কাছে প্লাস্টিক সার্জারি করান, তিনিই এলিনারও প্লাস্টিক সার্জারি করেন। এখন এলিনা অনেক বেশি সুন্দরী হয়ে উঠেছেন বলেও মত অনেকের। আরও একটি বিষয় সকলের এবার নজর কেড়েছে। এবার এলিনার হাতে দেখা গেছে বিয়ের আংটি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button