Business

২ হাজার টাকার নোট বন্ধ হওয়ার পরও কত নোট বাইরে জানাল আরবিআই

২ হাজার টাকার নোট আর ছাপা হচ্ছেনা। ব্যবহারও করা যাবেনা। তারপরেও কত ২ হাজারের নোট মানুষের হাতে রয়ে গেছে, চমক দিল আরবিআই রিপোর্ট।

২ হাজার টাকার নোট ছাপা বন্ধ হওয়ার পর তা কার্যত বাজার থেকে উধাও হতে থাকে। সাধারণ মানুষ দ্রুত সেসব নোট ব্যাঙ্কে জমা দিতে থাকেন। যতদিন তা দিয়ে জিনিসপত্র কেনা গেছে ততদিন তাঁরা সে কেনাকাটাও করেছেন।

এসব ২০২৩ সালের কথা। এখন ২০২৪ সালের অর্ধেক পার হয়ে গেছে। ২০২৪ সালের প্রথমার্ধের ৬ মাস কাটানোর পর এখনও কিন্তু অনেক ২ হাজার টাকার নোটই বাইরে রয়ে গেছে।

অর্থাৎ এই নোট ব্যাঙ্কে জমা পড়েনি। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বা আরবিআই এবার কত নোট বাইরে রয়েছে তার একটা ধারনা দিল। যা অনেককেই চমকে দিয়েছে।

আরবিআই জানাচ্ছে ৭ হাজার ৫৮১ কোটি টাকার ২ হাজারি নোট এখনও সাধারণ মানুষের হাতে রয়ে গেছে। বাজারে থাকা মোট ২ হাজার টাকার নোটের ৯৭.৮৭ শতাংশ নোটই ব্যাঙ্কে জমা পড়েছে। যেটা বাকি তার অঙ্ক ৭ হাজার ৫৮১ কোটি টাকা। এই বিপুল পরিমাণ অর্থের ২ হাজারি নোট এখনও ব্যাঙ্কে জমা পড়েনি।


৩.৫৬ লক্ষ কোটি টাকার ২ হাজারি নোট বাজারে ছিল ১৯ মে ২০২৩ সালে। যা কমে এখন ৭ হাজার ৫৮১ কোটিতে পৌঁছেছে। কিন্তু এখনও এত নোট বাইরে কেন?

প্রসঙ্গত ২ হাজার টাকার গোলাপি নোট ২০১৬ সালের নভেম্বরে নোটবন্দির পর বাজারে আসে। সেটাই ছিল ভারতের সবচেয়ে বড় অঙ্কের নোট। যা এখন আর নেই। এখন দেশের সবচেয়ে বড় অঙ্কের নোট হল ৫০০ টাকার নোট।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button