National

নিশানায় মোদী সরকার, টিকা পেতে দেশবাসীকে আত্মনির্ভর হতে বললেন রাহুল

টিকা নিয়ে মোদী সরকারকে ফের নিশানা করলেন রাহুল গান্ধী। তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন কেন্দ্রকে। এদিন ট্যুইট করে কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন তিনি।

টিকা নিয়ে দেশজুড়ে হাহাকার এখনও অব্যাহত। বহু টিকাকরণ কেন্দ্রে টিকা নেই। দেশের শতকোটির ওপর মানুষ এখনও টিকা পাননি।

টিকা পেতে চাইলেই যে কেউ পাবেন এমন পরিস্থিতি একেবারেই নেই। বরং টিকা নিতে চেয়েও কোথাও টিকা পাচ্ছেন না বহু মানুষ।

রাত থেকে লাইন দিয়েও পরে শুনতে হচ্ছে টিকা নেই। ফিরে যান। এমন এক পরিস্থিতিতে কার্যত কোণঠাসা মোদী সরকারকে এবার তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। ট্যুইট করে তিনি খোঁচা দিয়েছেন মোদী সরকারকে।

রাহুল হিন্দিতে ট্যুইট করে দেশবাসীকে উদ্দেশ্য করে এদিন লেখেন, সরকার এখন নীল টিকে-এর জন্য লড়াই করছে, তাই এই অবস্থায় কোভিড টিকা চাই তো আত্মনির্ভর হোন।

নিজের চেষ্টায় যদি টিকা পেতে পারেন তাহলে নিয়ে নিতেই, পরামর্শ রাহুলের। এটা যে মোদী সরকারকে তীব্র কটাক্ষ তা বুঝতে কারও সমস্যা হয়নি।

কংগ্রেস যে টিকা নিয়ে মোদী সরকারকে আক্রমণ শানাবে তা আশ্চর্যের নয়। বিরোধী দল হিসাবে টিকা নিয়ে বেকায়দায় থাকা মোদী সরকারকে যে কংগ্রেস বিঁধবে সেটাই স্বাভাবিক।

রাহুল গান্ধীকেও বিভিন্ন সময়ে ট্যুইট করে খোঁচা দিতে দেখা গেছে মোদী সরকারকে। সাধারণ মানুষও এখন চিন্তিত যে তাঁরা কবে পাবেন করোনার প্রতিষেধক টিকা? কারণ অনেক টিকাকরণ কেন্দ্রেই কিন্তু এখন টিকা নেই।

রাহুলের দাবি যখন অতিমারি চলছে তখন সরকারের কাছে কিন্তু অন্য বিষয় বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। কিন্তু কেন এই তীব্র আক্রমণ রাহুলের?

কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক ও আইটি মন্ত্রক ট্যুইটারকে একটি চূড়ান্ত নোটিশ পাঠিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে দেশের নতুন আইটি বিধি অনুসরণ করছে না ট্যুইটার। তারা যদি আগামী দিনে আইটি আইন মানতে ব্যর্থ হয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে দণ্ডনীয় পদক্ষেপ করা হবে।

প্রসঙ্গত গত ২৬ মে থেকে দেশে নয়া আইটি আইন লাগু হয়েছে। যা মানতে ট্যুইটারকে কড়া চিঠি দিয়েছে কেন্দ্র। প্রসঙ্গত এর আগে হোয়াটসঅ্যাপকেও কড়া বার্তা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More