World

২০০ বছর পর ঘুম ভাঙল মেয়নের, জ্বালামুখ বেয়ে বইছে গরম লাভাস্রোত

কুম্ভকর্ণের ঘুম ভাঙল। ২০০ বছর পর জেগে উঠল আগ্নেয়গিরি। আর ঘুম ভাঙতেই লাল চোখে সে শাসাতে লাগল প্রজাদের। প্রবল গর্জনে ফুঁসতে থাকা পর্বত-দৈত্যের কালো ছাইয়ে ঢেকে গেছে আকাশ। এতদিন ধরে পেটের ভিতর জমে থাকা বদরাগ বার করতে হবে তো? সেই রাগ গরম লাভা হয়ে ছিটকে গিয়ে পড়ছে প্রায় আধ কিলোমিটার দূরত্ব অবধি। যার ফলে ঘোর বিপদের মুখে পড়লেন ফিলিপাইন দ্বীপপুঞ্জের আলবে প্রদেশের বাসিন্দারা।

গত রবিবার থেকেই একটু একটু করে ফুঁসে উঠছিল আগ্নেয়গিরি মাউন্ট মেয়ন। গত ৫০০ বছর ধরে প্রায় ৫০ বার এমন করেই জেগে উঠেছে এই আগ্নেয়গিরি। উগরে দিয়েছে গলিত লাভার স্রোত। ১৮১৪ সালে শেষবারের মতো তার তাণ্ডব দেখেছিলেন ফিলিপিন্সবাসী। ২০০ বছরেরও বেশি ঘুমিয়ে থাকা সেই মেয়ন গত সোমবার থেকে আবার ভয়ানক চেহারা নিয়ে জেগে উঠেছে।

ফিলিপিন্সের এই আগ্নেয়গিরি বিপদে ফেলতে পারে বহু মানুষকে। তাই সোমবার থেকেই নড়েচড়ে বসে স্থানীয় প্রশাসন। আগ্নেয়গিরির আশপাশে থাকা প্রায় ১৫ হাজার মানুষকে এরমধ্যেই সরিয়ে ফেলার কাজ শুরু করে দিয়েছেন উদ্ধারকারীরা। একবার যখন অগ্নুদ্গারণ শুরু করেছে তখন তা এক সপ্তাহেরও বেশি চলবে বলেই মনে করছেন ভূবিজ্ঞানীরা। ফলে আশপাশের অনেক এলাকাই তার গরম ছাই আর গলিত লাভার স্রোতের শিকার হতে পারে। তাই কোনও ঝুঁকি না নিয়ে আগাম লোকজনকে নিরাপদ দূরত্বে সরাতে চাইছে প্রশাসন। নজর রাখা হচ্ছে মেয়নের গতিপ্রকৃতির দিকেও।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button