Murder

চাকরি ছাড়তে নারাজ স্ত্রীয়ের ধড়-মুণ্ড আলাদা করে দিল স্বামী

চাকরি ছাড়তে রাজি নন স্ত্রী। বারবার বলেও কথা শুনছিলেন না ৩৭ বছরের নাসরিন। স্বামীকে সাফ জানিয়েছিলেন তিনি তাঁর কাজ চালিয়ে যাবেন। স্ত্রীয়ের এই ঔদ্ধত্য সহ্য হয়নি স্বামী আফরহিমের। ৩ সন্তানের জননী নাসরিন যখন রাতে ঘুমচ্ছিলেন তখনই চপার দিয়ে তাঁর গলা কেটে দিল বিরক্ত আফরহিম। প্রাথমিক তদন্তের পর এমনই মনে করছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের মাঙ্গা মাণ্ডি এলাকায়।

দরিদ্র পরিবার। কাছের রাইভিন্দ এলাকায় একটি নির্মাণ সংস্থায় শ্রমিকের কাজ করে কিছু রোজগারের চেষ্টা করছিলেন নাসরিন। ঘরে কিছু বেশি টাকা এলে গোটা পরিবারটারই উপকার হয়। কিন্তু নাসরিনের কাজ করায় প্রবল আপত্তি ছিল স্বামী আফরহিমের। বহুবার এ নিয়ে দুজনের মধ্যে ঝঞ্ঝাটও হয়েছে। অবশেষে স্ত্রী কিছুতেই শোনার পাত্র নন বুঝে রাতে চপার দিয়ে স্ত্রীয়ের গলা ধড় থেকে আলাদা করে দেয় আফরহিম। তারপর এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় সে। মাকে ওই অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে ছেলেমেয়েরা পড়শিদের খবর দেয়। পড়শিরা পুলিশে খবর দেন।

About News Desk

Check Also

Brindaban Matri Mandir

বৃন্দাবন মাতৃ মন্দির

এ শহরে অনেক বারোয়ারি পুজোই ১০০ ছুঁই ছুঁই। শতবর্ষ পার করা পুজোর সংখ্যা নেহাতই নগণ্য। সেই হাতে গোনা কয়েকটি শতবর্ষ পার করা পুজোর একটি বৃন্দাবন মাতৃ মন্দির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *