World

চাকরি চেয়ে সংস্থার কাছে খাওয়া যায় এমন বায়োডাটা পাঠালেন তরুণী

বায়োডাটা খতিয়ে দেখার পর তা খেয়ে ফেলা যাবে। এমনই এক বায়োডাটা এক নামী সংস্থার কাছে পাঠালেন এক তরুণী।

তাঁর চাকরিটা হবে কি না তা কারও জানা নেই। তবে যেভাবে তিনি চাকরি চাইলেন তা অভিনব। ফলে তা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এভাবেও যে চাকরি চেয়ে বায়োডাটা পাঠানো যেতে পারে তা কল্পনার অতীত।

তবে চাকরিপ্রার্থী ওই তরুণীর দাবি, তিনি একটি সৃজনশীল সংস্থার কাছে একটি সৃজনশীল ভাবনার পরিচয় দিলেন। তিনি এমন এক বায়োডাটা পাঠালেন যা খতিয়ে দেখার পর তা দিব্যি খেয়ে ফেলতে পারেন সংস্থার আধিকারিকরা।

বায়োডাটাটা আসলে একটি কেকের উপরিভাগে লেখা রয়েছে। যা কেকেরই অংশ। কেকের ওপর অনেক রকম ডিজাইন করা থাকে। এক্ষেত্রে ওই ডিজাইনটাই হল বায়োডাটা। যা বায়োডাটাও বটে আবার সুখাদ্যও বটে।

তাঁর এই বায়োডাটা যাতে নাইকি সংস্থার সঠিক লোকের কাছে পৌঁছয় তার ব্যবস্থাও করেছিলেন ওই তরুণী। এজন্য বিশেষ একজনের হাতে করে সেটি পাঠান। কারণ কেক তো আর চিঠিতে পাঠানো যাবেনা। ড্রপ বক্সেও ফেলা যাবেনা।

তাঁর এই বায়োডাটা সংস্থার আধিকারিকদেরও মন জয় করেছে। ভাবনার তারিফ করছেন অনেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অবশ্য কেকের বায়োডাটার কিঞ্চিত সমালোচনাও হয়েছে।

অনেকে একে গিমিক বলে কটাক্ষ করেছেন। তবে সব মিলিয়ে নর্থ ক্যারোলিনার বাসিন্দা কার্লি নামে ওই তরুণী এখন খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *