National

সেপ্টেম্বরেই আসছে প্রথম রাফাল, কংগ্রেসকে আক্রমণ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর

১০ বছর ক্ষমতায় থেকেও রাফাল চুক্তি সম্পূর্ণ করতে পারেনি কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার। ১০ বছরেও কেন হলনা চুক্তি? তবে কী অন্য কারণ ছিল? ২০১৪ সালে প্রতিরক্ষামন্ত্রী সংসদের বাইরে দাঁড়িয়ে জানিয়েছিলেন রাফাল কেনার জন্য টাকা নেই সরকারে কাছে। সেটা কোন টাকা? অথচ ২০১৪-এ এনডিএ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০১৬ সালের মধ্যেই রাফাল চুক্তি সম্পূর্ণ করে। রাফাল প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে এদিন লোকসভায় কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী এও দাবি করেন, আশপাশের রাষ্ট্রগুলি তাদের প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম বাড়াচ্ছে। চিনের কাছ থেকে যুদ্ধবিমান কিনছে পাকিস্তান। সেখানে ভারতীয় সেনাকেও প্রয়োজনে যুদ্ধ করার জন্য আধুনিক সরঞ্জাম দিতে হবে। দেশের সুরক্ষা সবচেয়ে আগে। তাই এই রাফাল চুক্তি। তিনি দাবি করেন, এই চুক্তি সম্পূর্ণ হওয়ার পর চুক্তি অনুযায়ী ৩ বছর পর প্রথম বিমান হাতে পাওয়ার কথা। যা এই বছরের সেপ্টেম্বরে হাতে পেতে চলেছে ভারত। সেপ্টেম্বরে মিলবে প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমান। আর শেষ রাফাল যুদ্ধবিমানটি অর্থাৎ ৩৬ তম রাফাল বিমানটি আসবে ২০২২ সালে। মন্ত্রীর দাবি, এই বিমান বানাতে যে সময়টুকু লাগে সেটা প্রস্তুতকারক সংস্থাকে দিতেই হবে।

(সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা)


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button