World

বসে যাচ্ছে নিউ ইয়র্ক শহর, বাড়ছে জল ঢোকার আশঙ্কা, কেন ব্যাখ্যা করলেন গবেষকেরা

নিউ ইয়র্ক শহর ক্রমশ বসে যাচ্ছে। এভাবে নিচে নামতে থাকায় ক্রমশ উপকূল দিয়ে জল ঢোকার সম্ভাবনা বাড়ছে। কেন বসছে তা শুনে হতবাক বিশ্ববাসী।

পৃথিবীর যে কটি হাতে গোনা শহরের নাম এক ডাকেই চিনতে পারেন বিশ্বের যে কোনও প্রান্তের মানুষ তারমধ্যে নিউ ইয়র্ক অবশ্যই একটি। সেই বিখ্যাত নিউ ইয়র্ক শহর ক্রমশ নিচের দিকে বসে যাচ্ছে।

গবেষকদের হিসাব বলছে প্রতিবছর ১ থেকে ২ মিলিমিটার করে বসে যাচ্ছে শহরটি। যা তাঁদের চিন্তায় ফেলেছে। কারণ এভাবে বসতে থাকলে উপকূল দিয়ে জল ঢোকার সম্ভাবনা বাড়ছে।

উপকূলীয় এলাকায় সমুদ্রে জলস্ফীতি হলে তা যে নিউ ইয়র্কের জন্য আগামী দিনে এক ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে তা ভেবে আতঙ্কিত গবেষকেরা।

কিন্তু কেন এভাবে বসে যাচ্ছে একটা গোটা শহর। গবেষকেরা তারও ব্যাখ্যা দিয়েছেন। গবেষকেরা মনে করছেন নিউ ইয়র্ক শহর জুড়ে যে আকাশচুম্বী বাড়ির ভিড় জমেছে, তার ভারেই ক্রমশ বসে যাচ্ছে শহরটি।

যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে তাতে উপকূলে থাকা প্রায় ৮০ লক্ষ মানুষ বন্যার মুখে পড়তে পারেন। ম্যানহাটন, ব্রুকলিন, কুইন্স এবং নর্দার্ন স্ট্যাটেন আইল্যান্ড আরও দ্রুত বসে যাচ্ছে। এলাকাগুলি প্রতিবছর ২.৭৫ মিলিমিটার করে বসে যাচ্ছে।

বিশেষজ্ঞেরা জানাচ্ছেন, সমুদ্রের ধারের অনেক শহরেই প্রচুর অতি বিশাল সব বাড়ির ভিড়। যা কিন্তু শহরকে কিছুটা করে হলেও বসিয়ে দেয়।

অন্যদিকে সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধি এখন এক বড় সমস্যা হয়ে উঠেছে। এই ২টি একসঙ্গে হয়ে আদপে যা করছে তা হল উপকূলীয় এলাকায় থাকা শহরগুলিতে প্লাবনের সম্ভাবনা বাড়াচ্ছে। যা সে শহরের মানুষের জন্য এক অশনিসংকেত। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button