World

শাটডাউনের সময়সীমা আরও বাড়াল নিউ ইয়র্ক

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুধু নিউ ইয়র্কেই এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ১৯৮ জনের। ২ লক্ষ ২৩ হাজার ২৩১ জন আক্রান্ত।

ঘোষণা ছিল ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত নিউ ইয়র্কে শাটডাউন থাকবে। কিন্তু এখনও নিউ ইয়র্কে করোনা সংক্রমণের ওপর নিয়ন্ত্রণ আনতে পারেনি প্রশাসন। যদিও নিউ ইয়র্কে সংক্রমণের হার কমেছে। তবু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনার ভরকেন্দ্র হিসাবে যে জায়গাকে ধরে নেওয়া হচ্ছে তা নিউ ইয়র্ক।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুধু নিউ ইয়র্কেই এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ১৯৮ জনের। ২ লক্ষ ২৩ হাজার ২৩১ জন আক্রান্ত। শুধু নিউ ইয়র্কের এমন পরিস্থিতিতে তাই ২৯ এপ্রিল শাটডাউন প্রত্যাহার করতে ভরসা পেলেন না সেখানকার গভর্নর অ্যান্ড্রু কুয়োমো।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট যখন দেশে এবার আস্তে আস্তে শাটডাউন শিথিল করতে উৎসাহী। তিনি চাইছেন এবার শুরু হোক কাজকর্ম। অবশ্যই ধাপে ধাপে। তখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের কোনও ঘোষণার আগেই কুয়োমো নিউ ইয়র্কে শাটডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর কথা ঘোষণা করে দিলেন। শাটডাউনের সময়সীমা বর্ধিত করে তা ১৫ মে করা হয়েছে। অর্থাৎ নিউ ইয়র্কে শাটডাউন থাকবে ১৫ মে পর্যন্ত। এর আগে নিউজার্সি শাটডাউন বাড়ানোর ঘোষণা করেছিল ঠিকই। তবে তা কেবল প্রযোজ্য স্কুলগুলির জন্য।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অবশ্য দেশ থেকে ধীরে ধীরে শাটডাউন প্রত্যাহার করার পক্ষেই সওয়াল শুরু করেছেন। তাঁর মতে মার্কিন মুলুকে করোনা সংক্রমণ নিচের দিকে নামতে শুরু করেছে। ফলে সেখানে এবার কাজকর্ম শুরু করা যেতে পারে। কীভাবে তা করা হবে সে বিষয়ে আলোচনা করতে তিনি এদিন বসছেন দেশের বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নরদের সঙ্গে। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে হবে আলোচনা। প্রসঙ্গত মার্কিন মুলুকে করোনায় মৃত্যু ৩৪ হাজার পার করেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button