National

ভূত বিশারদের ‘ভৌতিক’ মৃত্যু!

বাথরুমে রহস্যজনক মৃত্যুর শিকার হলেন ভূত বিশারদ গৌরব তিওয়ারি। তাঁর গলায় একটা কালো দাগ পেয়েছে পুলিশ। ময়না তদন্তের পর পুলিশের দাবি গৌরবের মৃত্যু হয়েছে অক্সিজেনের অভাবে। কিন্তু বাথরুমে কিভাবে অক্সিজেনের অভাব তৈরি হল! কিভাবেই বা এল গলায় কালো দাগ! নাঃ, এর কোনও সদুত্তর এখনও দিতে পারেনি পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার বেলার দিকে বাথরুমে স্নান করতে ঢোকেন গৌরব। আচমকাই বাথরুম থেকে একটা বিকট শব্দ পেয়ে সেখানে হাজির হন পরিবারের লোকজন। দেখেন বাথরুমের মেঝেতে পড়ে আছে গৌরবের নিথর দেহ। গৌরবের পরিবারের দাবি কিছুদিন আগে স্ত্রীকে একটা অদ্ভুত কথা বলেছিলেন গৌরব। তিনি জানিয়েছিলেন তাঁকে এক অশুভ শক্তি তার দিকে টানছে। চেষ্টা করেও তার সেই আকর্ষণ থেকে বেরিয়ে আসতে পারছিলেন না তিনি। তখন এসব কথার কোনও গুরুত্ব না দিলেও এখন বিষয়টি ভাবাচ্ছে শোকাচ্ছন্ন তিওয়ারি পরিবারকে। একথা পুলিশকেও জানিয়েছেন তারা। ভুত নিয়ে মানুষের মনে গেঁথে থাকা ভয়কে দূর করতে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন গৌরব। মানুষকে ভূতের ভয় থেকে মুক্তি দিতে বিশ্ব জুড়ে নামকরা ৬ হাজার ভূতের বাড়িতে রাত কাটান তিনি। পেশায় পাইলট গৌরব ভূত নিয়ে গবেষণার জন্য ২০০৯ সালে গড়ে তুলেছিলেন ইন্ডিয়ান প্যারানর্মাল সোসাইটি। যিনি সারা জীবনটা ভূতের রহস্য ভেদে কাটিয়ে দিলেন তাঁকেই কিনা মরতে হল এমন ভৌতিকভাবে! বিষয়টা নিয়ে এখনও অজানা আতঙ্কে সিটিয়ে আছেন দ্বারকার তাঁর প্রতিবেশিরা।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button