National

বিশ্বের বৃহত্তম টয়লেট পট

বাড়ির শুচিতা রক্ষাই সবচেয়ে জরুরি। অতএব লোটা নিয়ে পেট হাল্কা করতে রাতের অন্ধকার থাকতে থাকতে চলো খোলা মাঠে। অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘টয়লেট এক প্রেম কথা’ সিনেমার এই দৃশ্য নিশ্চয়ই মনে আছে। খোলা জায়গায় মলমূত্র ত্যাগ করা নিয়ে দ্বন্দ্বে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের রাস্তায় হাঁটার সাহস দেখিয়েছিল মধ্যপ্রদেশের অনিতা নারে। এইভাবে খোলা স্থানে মলমূত্র ত্যাগ করা শুধু অস্বাস্থ্যকর নয়, মহিলাদের পক্ষে বিপদজনকও বটে। বাড়িতে শৌচাগার না থাকায় খোলা জায়গায় শৌচ করতে গিয়ে ধর্ষিত হতে হয়েছে বহু গ্রাম্য মহিলাকে। সেইসব ঘটনার কথা সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। সাধারণ মানুষের মধ্যে শৌচাগার ব্যবহারে সচেতনতা বৃদ্ধিতে নানাসময়ে প্রচারমূলক কর্মকাণ্ডের আয়োজনও করা হয়েছে। এবারে বিশ্বের বৃহত্তম টয়লেট পট তৈরি করে সাধারণ মানুষের মধ্যে শৌচাগার ব্যবহারের সচেতনতা বাড়াতে অভিনব উদ্যোগ নিল হরিয়ানা সরকার।

রবিবার বিশ্ব টয়লেট দিবস উপলক্ষে হরিয়ানার প্রত্যন্ত এলাকা মারোরার একটি গ্রামে উদ্বোধন হয় ২০ ফুট লম্বা ও ১০ ফুট চওড়া টয়লেট পটটির। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্বচ্ছ ভারত অভিযান প্রকল্প এবং স্বচ্ছতা ও শৌচাগার গড়ে তোলার পরিকল্পনাকে সার্থক রূপ দিতে এই অভিনব উদ্যোগ নেয় হরিয়ানা সরকার। এই বিশালাকায় টয়লেট সাধারণ মানুষের ব্যবহারের জন্য নয়। একটি এনজিও-র উদ্যোগে ব্যবহারযোগ্য ৯৫টির মতো ঘরোয়া শৌচাগার ওই গ্রামের বাসিন্দাদের তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। লোহা, ফাইবার, কাঠ ও প্লাস্টার অফ প্যারিস দিয়ে তৈরি টয়লেটের রেপ্লিকাটিকে খুব শিগগির দিল্লির সুলভ শৌচাগার মিউজিয়ামে পাঠানো হবে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button