National

ইন্ডিয়ান পিনাল কোডে যাত্রা শেষ, দেশে শুরু ভারতীয় ন্যায় সংহিতা

ইন্ডিয়ান পিনাল কোড বা আইপিসি-র ধারা ধরে ফৌজদারি মামলার বিচার ও রায় দান সোমবার থেকে বিদায় নিল। এল নতুন আইন।

ব্রিটিশ আমল থেকেই ভারতে যে কোনও ফৌজদারি মামলার বিচার ও রায় ঘোষণার সময় ইন্ডিয়ান পিনাল কোডের ধারার কথা শোনা যেত। ইন্ডিয়ান পিনাল কোড বা আইপিসি শব্দটা এতটাই বহুল প্রচলিত ছিল যে তা প্রায় সকলের জানা। আইনগুলি সম্বন্ধে ধারনা নাও থাকতে পারে, কিন্তু আইপিসি শব্দটা ভারতীয়দের খুব চেনা।

সেই ইন্ডিয়ান পিনাল কোড আর রইল না। সোমবার থেকে তা বদলে গেল। এবার থেকে ইন্ডিয়ান পিনাল কোডের জায়গায় ভারতীয় ন্যায় সংহিতা নামে ধারা প্রয়োগ হবে অপরাধমূলক মামলার ক্ষেত্রে।

এই আইন আরও অনেক কম সময়ে ন্যায় বিচার করবে। বর্তমান সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এই আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। যাতে ন্যায় বিচার দ্রুত হয়।

আধুনিক সময়ে অপরাধেও যে পরিবর্তন এসেছে তার সঙ্গে খাপ খাইয়েই এই নতুন আইন বলবত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সকলে যাতে ন্যায় বিচার পান তা সুনিশ্চিত করতেই এই পদক্ষেপ বলেও জানিয়েছেন তিনি। এই নতুন ব্যবস্থায় ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের প্রয়োজন অনেকটা বৃদ্ধি পাবে। ফলে দেশজুড়েই ফরেনসিক বিশেষজ্ঞের প্রয়োজন পড়বে।


ভারতীয় ন্যায় সংহিতা অনুযায়ী এবার থেকে প্রথম শুনানির ৬০ দিনের মধ্যে চার্জ ফ্রেম করতে হবে। বিচার প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে এবার থেকে রায় ঘোষণা করতে হবে।

ইন্ডিয়ান পিনাল কোডের বিদায়ের সঙ্গে সঙ্গে এদিন থেকে বিদায় নিয়েছে কোড অফ ক্রিমিনাল প্রসিডিয়োর এবং ইন্ডিয়ান এভিডেন্স অ্যাক্ট। এ ২টি বদলে হয়েছে যথাক্রমে ভারতীয় নাগরিক সুরক্ষা সংহিতা এবং ভারতীয় সাক্ষ্য অধিনিয়ম। এগুলি সবই ব্রিটিশ আমলের ফৌজদারি আইন। এমন তড়িঘড়ি করে নয়া ফৌজদারি আইন বলবতের সমালোচনা করেছে তৃণমূল।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button