National

তাজমহলকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে শহরে তৈরি নতুন আকর্ষণ

এ শহরের নাম বললেই মনে পড়ে তাজমহলের কথা। আর যে কিছু আছে শহরটায় এমনটা কারও জানা নেই। এবার কিন্তু তাজমহলের সমপরিমাণ আকর্ষণ নিয়ে হাজির নতুন টান।

তাজমহলের নাম সকলের জানা। আর আগ্রা বললেই যে নামটা প্রথমেই মনে পড়ে সেটা হল তাজমহল। প্রথমে কেন প্রথম থেকে শেষ, আগ্রা বলতে কেবল একটাই আকর্ষণ তাজমহল। এমনটাই জানা ছিল পর্যটকদের।

কিন্তু এবার তাজমহলকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে আগ্রায় তৈরি হয়েছে নতুন আকর্ষণ। যা পর্যটকদের সমপরিমাণে আকর্ষিত করছে তার দিকে। পর্যটকরা এখন আগ্রায় গিয়ে কেবল তাজমহল দেখেই ফিরছেন না, এই নয়া আকর্ষণকেও প্রত্যক্ষ করছেন।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

যেটি একটি শ্বেতশুভ্র পাথরের সমাধিস্থল। ১৯৩ ফুট উঁচু কাঠামো, ৫২টি দেওয়াল সম্বলিত এ এক অপরূপ সৃষ্টি। রাধাস্বামী সম্প্রদায়ের প্রতিষ্ঠাতা পরম পুরুষ পূরণ ধনী স্বামীজি মহারাজের নামেই এই সমাধিক্ষেত্র প্রতিষ্ঠা হয়েছে।

যার শিল্পকীর্তি অবশ্যই মানুষকে হতবাক করে দিতে পারে। এই অপরূপ সৃষ্টিটি তৈরি করতে ১০৪ বছর সময় লেগেছে বলে মনে করা হচ্ছে। যেখানে এখন ভিড় সামাল দেওয়া দায় হয়ে উঠেছে।

পর্যটক থেকে ভক্ত, বহু মানুষ এখানে প্রতিদিন হাজির হচ্ছেন। যাঁরা আগ্রায় গিয়ে তাজমহল দেখে ফিরে আসতেন, তাঁরাও এখন এই শ্বেতপাথরের সমাধিক্ষেত্রটি না দেখে ফিরছেন না।

তাজমহল থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই অপরূপ শিল্পকীর্তির টানে এখন পর্যটকদের বাসের লাইন পড়ছে এখানে। ফলে তাজমহল আর একা নয়, আগ্রায় এবার আর এক চমক দেওয়া শিল্পকৃষ্টি মানুষের অন্যতম আকর্ষণ হয়ে উঠেছে। জায়গা করে নিয়েছে পর্যটন মানচিত্রে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button